পাইকগাছায় মায়ের উপর অভিমান করে ৯ বছরের শিশুর আত্নহত্যা


99 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছায় মায়ের উপর অভিমান করে ৯ বছরের শিশুর আত্নহত্যা
মে ১৪, ২০২২ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস এম আলাউদ্দীন সোহাগ ::

পাইকগাছা রাড়ূলীর ষষ্টিতলা এলাকায় শনিবার সকালে মরিয়াম নামে ৯ বছরের এক শিশুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয়েছে। সে ঐ এলাকার জুলফিকার গাজীর মেয়ে।
তবে ঘটনাটি আত্নহত্যা নাকি অন্যকিছু তাৎক্ষণিক তা জানা সম্ভব না হলেও ধারণা করা হচ্ছে, সে মায়ের উপর অভিমান করে আত্নহত্যা করে থাকতে পারে।
স্বজনরা জানায়, মরিয়ম স্কুলে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে দেখে তার মা বাড়ির বাইরে যায়। এর আগে সে গোস্ত খেতে চাওয়ায় পিতা গোস্ত আনতে বাজারে গিয়েছিল। কিছুক্ষণ পর মা বাড়ি ফিরে দেখে মরিয়ম ঘরের আড়ায় ঝুলন্ত অবস্থায় দাপাদাপি করছে।
তাৎক্ষণিক মরিয়মকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় গ্রাম্য ডাক্তার ও পরে তার অবস্থা খারাপ দেখে পাইকগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানকার কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এসময় কর্তব্যরত ডাক্তার আরো জানান, হাসপাতালে নেওয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।
পারিবারিক সূত্র দাবি করছে, মরিয়মের সাথে তাদের কারো কোন প্রকার ঝগড়া-বিবাদ কিংবা রাগারাগি হয়নি। মা-বাবার অনুপস্থিতিতে আকষ্মিক তার আত্নহত্যার বিষয়টি রীতিমত রহস্যজনক বলে দাবি করছেন স্থানীয়রা।
এব্যাপারে পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউর রহমান শিশুটির পরিবারের উদ্বৃতি দিয়ে জানান, সকালে সে মায়ের কাছে স্কুলের টিফিনে মাংশ খেতে চায়। তবে এদিন তার মা ডিম দিয়ে পরের দিন মাংশ দেবে বলে টিফিন নিয়ে স্কুলে যেতে বলে। এরপর সে স্কুলে যাওয়ার প্রস্তুতি
নিচ্ছে দেখে মা বাড়ির বাইরে যাওয়ার সুযোগে ঘরের আড়ায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সে আত্নহত্যা করে। লাশের সুরোতহাল রিপোর্ট হলেও পরিবারের দাবির প্রেক্ষিতে লাশ ময়না তদন্তের জন্য না পাঠিয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সর্বশেষ এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে
বলেও জানিয়েছেন তিনি।