পাইকগাছায় শ্মশান প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ : এমপি’র কাছে অভিযোগ


303 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছায় শ্মশান প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ : এমপি’র কাছে অভিযোগ
নভেম্বর ৩০, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥
পাইকগাছায় মঠবাটী, ঘোষাল, চেঁচুয়া মহাশ্মশানের টি.আর প্রকল্পের চাউলের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে শ্মশান কমিটির সভাপতি সুকুমার সরকার পাইকগাছা-কয়রা এমপি এ্যাডঃ শেখ মোঃ নূরুল হকের নিকট অভিযোগ দাখিল করেছে। অভিযোগটি তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য গদাইপুর ইউনিয়ন পুলিশিং কমিটির সভাপতিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গদাইপুর ইউনিয়নের মঠবাটীতে ১৯০৬ সালে মঠবাটী, ঘোষাল, চেঁচুয়া মহাশ্মশান নিজস্ব ও সরকারী অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১৩ সালে মঠবাটী গ্রামের বিবেকানন্দ ধর গোপনে শ্মশানের নামে টি.আর প্রকল্পের সভাপতি হয়ে সরকারী দেড় টন চাল উত্তোলন করেন। কিন্তু বিগত ৩ বছর ধরে সে টাকা শ্মশান কমিটির নিকট জমা না দিয়ে নিজ পকেটস্থ করে রেখেছেন বলে শ্মশান কমিটির সভাপতি সুকুমার বিশ্বাস জানান। পরবর্তীতে এ ঘটনা জানাজানি হলে কতিপয় লোকজনের সহায়তায় কিছু টাকা শ্রীশ্রী রামকৃষ্ণ সেবাশ্রমের সভাপতির নিকট জমা দেন। বাকী টাকা ৩ মাসের ভিতরে জমা দিবেন মর্মে অঙ্গীকার করেন। কিন্তু নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে গেলেও টাকা জমা না দেয়ায় শ্মশান কমিটির সভাপতি,সন্তোষ সরকার,নারায়ন দেবনাথ,কল্লোল কুমার মল্লিক,সহ এলাকাবাসী গণস্বাক্ষর করে এমপি বরাবর অভিযোগ করে। এ বিষয়ে প্রকল্প সভাপতি বিবেকানন্দ ধরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, কিছু টাকা জমা দিয়েছি। বাকী টাকা শ্রীশ্রী রামকৃষ্ণ সেবাশ্রমের সভাপতির কাছে জমা আছে।