পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চেয়ে ২০ প্রার্থীর আবেদন


335 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চেয়ে ২০ প্রার্থীর আবেদন
জানুয়ারি ২৮, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

*সমঝোতা ছাড়াই আ’লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা সম্পন্ন

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়ে আবেদন করেছেন ২০জন প্রার্থী। সোমবার বিকেলে প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উপজেলা আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় চেয়ারম্যান পদে ৫, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬জন প্রার্থী আবেদন করেন। চেয়ারম্যান পদে আবেদন করেছেন উপজেলা আ’লীগের আহবায়ক গাজী মোহাম্মদ আলী, সদস্য সদস্য সচিব ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ রশীদুজ্জামান, জেলা আওয়ামীলীগনেতা ও সাবেক সাংসদ পুত্র আলহাজ্ব শেখ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা আ’লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান আহবায়ক কমিটির সদস্য আনোয়ার ইকবাল মন্টু ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এ্যাডঃ শেখ আবুল কালাম আজাদ। ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি এস,এম, শামছুর রহমান, আওয়ামীলীগনেতা ইকবাল হোসেন খোকন, সুকৃতি মোহন সরকার, শিহাব উদ্দীন ফিরোজ বুলু, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কৃষ্ণপদ মন্ডল, উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি দেবব্রত রায়, পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান, পৌর শ্রমিকলীগের সভাপতি শেখ হারুন-অর-রশিদ হিরু ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আলহাজ্ব মুজিবুর রহমান। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আবেদন করেছেন, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাসুমা বেগম, পৌর সভাপতি শেখ জুলি, উপজেলা যুব মহিলালীগের সভাপতি ময়না বেগম, সাধারণ সম্পাদক ফাতেমাতুজ্জোহরা রূপা, যুবলীগনেত্রী নাজমা কামাল ও লিপিকা ঢালী। উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক গাজী মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব রশীদুজ্জামানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামীলীগের জাতীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুল হক। প্রধান বক্তা ছিলেন, বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা আ’লীগের দপ্তর সম্পাদক এ্যাডঃ ফরিদ আহমেদ, জেলা আ’লীগনেতা আলহাজ্ব শেখ মনিরুল ইসলাম, পৌর আ’লীগের আহবায়ক শেখ কামরুল হাসান টিপু, পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুল মান্নান গাজী, নাহার আক্তার। বক্তব্য রাখেন, আওয়ামীলীগনেতা আলহাজ্ব আব্দুর রাজ্জাক মলঙ্গী, আনোয়ার ইকবাল মন্টু, ইউপি চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়াদ্দার, আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ গোলদার, রিপন কুমার মন্ডল, রুহুল আমিন বিশ্বাস, কে,এম, আরিফুজ্জামান তুহিন, আ’লীগনেতা আলহাজ্ব গোলাম মোস্তফা, যুগোল কিশোর দে, নির্মল মজুমদার, আনন্দ মোহন বিশ্বাস, আলহাজ্ব মুনছুর আলী গাজী, আবুল বাশার বাবুল সরদার, ডাঃ শংকর দেবনাথ, গাজী নজরুল ইসলাম, শেখ বেনজির আহমেদ বাচ্চু, নির্মল অধিকারী, মহাসিন সরদার, প্রভাষক ময়নুল ইসলাম, ভূধর চন্দ্র মন্ডল ও দেবু। সভায় প্রার্থী চূড়ান্ত করার লক্ষে উন্মুক্ত আলোচনায় দলীয় নেতাকর্মীরা ভিন্ন ভিন্ন প্রস্তাব দেয়। অনেকেই ভোটের মাধ্যমে এবং অনেকেই যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রার্থী চূড়ান্ত করার প্রস্তাব করেন। তবে কোন সমঝোতা না হওয়ায় আবেদনকারী প্রার্থীদের তালিকা মঙ্গলবার জেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভায় উত্থাপন করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভায় সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুল হক বর্তমান সংসদ সদস্যের সকল কাজে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ন্যায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। সভায় প্রধানবক্তা সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে দলের মধ্যে কোন বেচা-কেনা চলবে না। সাংগঠনিক নিয়মেই গণতন্ত্র অনুযায়ী দল পরিচালিত হবে। তিনি আরো বলেন, প্রার্থী চূড়ান্ত করার নামে আওয়ামীলীগকে বিভক্ত করা যাবে না। প্রার্থী চুড়ান্ত করার মালিক প্রধানমন্ত্রী। তিনি যাকে মনোনয়ন দিবেন আমরা সবাই মিলে তাকে নির্বাচিত করব।