পাইকগাছা-খুলনা সড়কের বেহালদশা


347 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা-খুলনা সড়কের বেহালদশা
জুলাই ২৩, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা :
চলতি বর্ষা মৌসুমে জনগুরুত্বপূর্ণ পাইকগাছা-খুলনা সড়ক জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। সংস্কারের কাজ শেষ হতে না হতেই বর্তমানে ৩৩ কিলোমিটার সড়কের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। দায়সারা সংস্কার ও মালামাল ভারী যানবাহন চলাচলের ফলে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে বাস মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেছে। দক্ষিণাঞ্চলের জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি আঞ্চলিক মহাসড়কের দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী। উল্লেখ্য, সড়ক ও জনপদ বিভাগের আওতায় পাইকগাছা পৌর সদর থেকে বেতগ্রাম (১৮ মাইল) পর্যন্ত ৩৩ কিলোমিটার সড়কটি এ বছরের শুস্ক মৌসুমে সংস্কারের কাজ সম্পন্ন করা হয়। এদিকে সংস্কারের কাজ শেষ হতে না হতেই বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই বাসস্ট্যান্ড, চারা বটতলা, সায়েদের মিল, আগড়ঘাটা বাজার, নতুন বাজারসহ সড়কের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে হাটুপানি জমে সড়কটি ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। পাইকগাছা, কয়রা, তালা, আশাশুনিসহ দক্ষিণাঞ্চলের কয়েকটি উপজেলার লাখ লাখ মানুষের জেলা এবং রাজধানী শহরের যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম হওয়ায় সড়কটি গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এ প্রসঙ্গে খুলনা বিভাগীয় বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির লাইন সেক্রেটারী জাহিদুল ইসলাম জানান, দায়-সারা সংস্কার ও প্রতিনিয়ত ২৫/৩০ টনের অধিক মালবাহী ভারী যানবাহন চলাচলের ফলে বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই সড়কের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। দক্ষিণাঞ্চের মানুষের নির্বিঘœ যাতায়াতের কথা বিবেচনা করে ইতোমধ্যে সড়কের বেতগ্রাম হতে কয়রার গোলখালী পর্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি আঞ্চলিক মহাসড়কে উন্নত করণের লক্ষে মহান জাতীয় সংসদে একাধিকবার উপস্থাপন এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ডিও লেটার প্রদান করা হয়েছে বলে স্থানীয় সংসদ সদস্য এ্যাডঃ শেখ মোঃ নূরুল হক জানান।