পাইকগাছা সংবাদ ॥ জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের প্রস্তুতি মূলক সভা


744 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা সংবাদ ॥ জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের প্রস্তুতি মূলক সভা
আগস্ট ৯, ২০১৬ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা :
জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে পাইকগাছা উপজেলা প্রশাসনের এক প্রস্তুতি মূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ-উল-মোস্তাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডঃ স ম বাবর আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ নাজমুল হক, ওসি মারুফ আহম্মদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ শাহাদাত হোসেন বাচ্চু, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডাঃ প্রভাত কুমার দাশ, ইউপি চেয়ারম্যান আবু জাফর সিদ্দিকী রাজু। বক্তব্য রাখেন, আ’লীগনেতা আব্দুর রাজ্জাক মলঙ্গী, অধ্যক্ষ লুৎফর রহমান, সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম, মিহির বরণ মন্ডল, প্রাক্তন অধ্যক্ষ রমেন্দ্রনাথ সরকার, উপজেলা পূজা পরিষদের সভাপতি সমিরণ সাধু, সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস, উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সম্পাদক তৃপ্তি রঞ্জন সেন, প্রধান শিক্ষক অজিত কুমার সরকার, সাংবাদিক মোঃ আব্দুল আজিজ, প্রকাশ ঘোষ বিধান, প্রাক্তন অধ্যাপক জিএম আজহারুল ইসলাম, জেলা যুবলীগ নেতা শেখ আনিছুর রহমান মুক্ত, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এসএম শামছুর রহমান, প্রভাষক ময়নুল ইসলাম, মাসুদুর রহমান মন্টু, বজলুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ আবুল কালাম আজাদ ও পৌর ইমাম পরিষদের সম্পাদক মাওঃ রইসুল ইসলাম। সভায় আগামী ১৫ আগষ্ট যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস উদযাপন ও দিবসটি উপলক্ষে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার, গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি, সিসি ক্যামেরা স্থাপন, পতাকা উত্তোলনের ক্ষেত্রে অবমাননা হলে মোবাইল কোর্ড পরিচলনা, স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ ও স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানে দিবসটি উদযাপনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।
##
পাইকগাছার মহিষ ব্যবসায়ীর সাড়ে ৩ লাখ টাকা ছিনতায়
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥
পাইকগাছার রেজাউল ইসলাম নামে এক ব্যবসায়ীকে আটকে রেখে সাড়ে ৩ লাখ টাকা ছিনতায়ের ঘটনা ঘটেছে। পাইকগাছা আইনজীবি সমিতির সদস্য এ্যাডঃ শফিকুল ইসলাম জানান, উপজেলার কালিদাশপুর গ্রামের মৃত ছবেদ আলী গাজীর ছেলে রেজাউল ইসলাম (৫০) দীর্ঘদিন মহিষ কেনা বেচার ব্যবসা করে আসছে। ঘটনার দিন গত ১ আগষ্ট রেজাউল মংলার বাঁশতলা পাইমার এলাকায় ৪টি মহিষ কিনতে যায়। ওই এলাকার পরিচিত এক ব্যবসায়ী মহিষ বিক্রির কথা বলে রেজাউলকে জনৈক এক ব্যক্তির বাড়িতে ডেকে নিয়ে ভয় দেখিয়ে তার কাছে থাকা সাড়ে ৩ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়। এরপর ৪/৫ দিন আটক রাখার পর কৌশল করে রেজাউল ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে আসে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল বলে আইনজীবি শফিকুল ইসলাম কচি জানিয়েছেন।