পাইকগাছা সংবাদ ॥ বিজ্ঞানী পিসি রায়ের ১৫৪ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত


378 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা সংবাদ ॥ বিজ্ঞানী পিসি রায়ের ১৫৪ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত
জুলাই ২৫, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা :
খুলনার পাইকগাছার বিশ্ববরেণ্য বিজ্ঞানী আচার্য্য প্রফুল্ল চন্দ্র (পিসি) রায়ের ১৫৪তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে ভারপ্রাপ্ত ইউএনও মোঃ কামরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, পিসি রায় স্মৃতি সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি শেখ শাহাদাৎ হোসেন বাচ্চু, অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, উপাধাক্ষ সরদার সরদার মোহাম্মদ আলী, আফছার উদ্দীন, প্রধান শিক্ষক কল্যাণব্রত ঘোষ, দাশ সাধন কুমার, নারায়ণ চন্দ্র শিকারী, গুলশানারা বেগম, ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আব্দুস সালাম বাচ্চু, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ গোলদার, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম, সাংবাদিক আব্দুল আজিজ, তৃপ্তি রঞ্জন সেন, প্রভাষক ময়নুল ইসলাম ও আ’লীগনেতা শংকর দেবনাথ। সভায় আগামী ২ আগস্ট যথাযথযোগ্য মর্যাদায় বিজ্ঞানী পিসি রায়ের ১৫৪তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।
##

পাইকগাছায় শিক্ষক-ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি নিয়ে তোড়পাড় : পরিচালনা পর্ষদের জরুরী বৈঠক
পাইকগাছা প্রতিনিধি :
খুলনার পাইকগাছায় শিক্ষক-ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ এলাকায় ব্যাপক সমালোচনাসহ নিন্দার ঝড় বইছে। ইতোপূর্বে এলাকাবাসী মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছে। সর্বশেষ এ ঘটনায় বৈঠক করেছে বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন সহ অপকর্মের এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের অপসারণসহ বিচারের দাবী জানিয়েছে সচেতনমহল।
জানা গেছে, উপজেলার গজালিয়া মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ইংরেজী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম ও সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের জনৈক প্রাক্তন এক ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ার পর এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়। সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের অপসারণ ও শাস্তির দাবী জানিয়ে এলাকাবাসী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করে। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষক রফিকুল ইসলামকে শোকজ করা হয়। এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে গত ২২ জুলাই এলাকাবাসীর উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়। যা বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশের পর শিক্ষক রফিকুল ইসলামের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ এলাকায় সমালোচনা ও নিন্দার ঝড় বইছে। ফেসবুক ব্যবহারকারীরা তাদের বিভিন্ন মন্তব্যে এহেন কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে শিক্ষক রফিকুল ইসলামের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান। সর্বশেষ এ ঘটনায় শনিবার বৈঠকে বসেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের নেতৃবৃন্দ। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বৈঠক চলছিল বলে প্রধান শিক্ষক এস,এম, মতিয়ার রহমান জানান।