পাইকগাছা সংবাদ ॥ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কৃষ্ণ রায় ইউপি সদস্য নির্বাচিত


356 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা সংবাদ ॥ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কৃষ্ণ রায় ইউপি সদস্য নির্বাচিত
মার্চ ২৫, ২০১৬ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥
পাইকগাছায় সদ্যসমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) পাইকগাছা উপজেলা শাখার অন্যতম সদস্য সাংবাদিক কৃষ্ণ রায়। তিনি উপজেলার লতা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড থেকে তালা প্রতীকে ৪৯৯ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন। এ ওয়ার্ড থেকে মোট ৩জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। সাবেক ইউপি সদস্য অজিত কুমার ঢালী মোরগ প্রতীকে পান ৩১৫ ভোট। আর প্রশান্ত মিস্ত্রী বল প্রতীকে পান ৮ ভোট। এদিকে নবনির্বাচিত কৃষ্ণ রায়কে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন, মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল মুগনি নিরো, সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর, পাইকগাছা উপজেলা শাখার সভাপতি মোঃ আব্দুল আজিজ, সহ-সভাপতি এসএম আলাউদ্দীন সোহাগ, বি সরকার, মোসলেহ উদ্দীন বাদশা, সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দীন রাজা, কোষাধ্যক্ষ ইমদাদুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক এন ইসলাম সাগর, দপ্তর সম্পাদক এম আর মন্টু, নজরুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম বজলু, শেখ দ্বীন মাহমুদ, আবুল হাসেম, আব্দুর রাজ্জাক বুলি, এম আহসান উদ্দীন বাবু।
##

পাইকগাছায় নির্বাচনী সহিংসতায় ৪ মামলায় দুই চেয়ারম্যান সহ দু’শতাধিক আসামী : গ্রেফতার আতঙ্কে পুরুষশূন্য এলাকা
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥
পাইকগাছায় নির্বাচন পূর্ব ও নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার ঘটনায় থানায় পৃথক ৪টি মামলা হয়েছে। পৃথক ৪টি মামলায় দুই চেয়ারম্যান সহ প্রায় ২শ জন ব্যক্তিকে আসামী করা হয়েছে। পুলিশ এ পর্যন্ত ১০ ব্যক্তিকে আটক করেছে। একাধিক এসব মামলার কারণে গ্রেফতার আতঙ্কে ভুগছে ৩ ইউনিয়নের মানুষ। আতঙ্কে অনেকেই এলাকা ছেড়ে পাড়ি জমিয়েছে অন্যত্র। ফলে এ সকল এলাকা অনেকটাই পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। উল্লেখ্য গত ২২ মার্চ উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত হয় ইউপি নির্বাচন। আর নির্বাচনকে ঘিরে নির্বাচন পূর্বে, নির্বাচনের দিন এবং নির্বাচন পরবর্তী সময়ে বেশ কিছু সহিংসতার ঘটনা ঘটে। নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার অভিযোগে সোলাদানা ইউনিয়নের দক্ষিণ কাইনমুখী গ্রামের মৃত সুধীর রায়ের ছেলে অমলেন্দু রায় বাদী হয়ে একই এলাকার রেবতী মন্ডলের ছেলে বিজন মন্ডলকে প্রধান আসামী করে ১৭ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ১০/১২ জনকে আসামী করে থানায় মামলা করে। যার নং- ১৯। হরিঢালী ইউনিয়নের নোয়াকাটী গ্রামের আইজুল সরদারের ছেলে জালাল সরদার বাদী হয়ে পুনরায় নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান আবু জাফর সিদ্দিকী রাজু সহ ২৫/৩০ জনকে আসামী করে থানায় মামলা করে। যার নং- ১৮। একই ইউনিয়নে মটরসাইকেলে অগ্নি সংযোগ ও ভাঙচুরের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান আবু জাফর সিদ্দিকী রাজু বাদী হয়ে পাল্টা আরেকটি মামলা করেন। মামলায় আ’লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী সরদার গোলাম মোস্তফা সহ ৪৪ জনকে আসামী করা হয়। যার নং- ১৭। নির্বাচনের দিন সন্ধ্যার পর চাঁদখালী ইউনিয়ন আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ে অগ্নি সংযোগ করার অভিযোগে কালিদাশ পুর গ্রামের মুত মাহাতাব সরদারের ছেলে আ’লীগনেতা আবু হায়দার সরদার বাদী হয়ে বিএনপি’র নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান জোয়াদুর রসুল বাবু সহ ২৫ জনের নাম উল্লেখ ও ৮০/৯০ জনকে আসামী করে মামলা করেন। যার নং- ১৬। এদিকে মামলায় শুক্রবার পর্যন্ত পুলিশ সোলাদানা ও চাঁদখালী ইউনিয়ন থেকে কমপক্ষে ১০ ব্যক্তিকে আটক করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন ওসি (তদন্ত) আলমগীর কবির।
##

“স্বাধীনতা তুমি”
পূজা বসু
স্বাধীনতা তোমার কথা মনে পড়লে
গর্ভে ভরে বুক।
স্বাধীনতা ছাড়া কোনো জাতি,
জীবনে পাইনি সুখ।
স্বাধীনতা তুমি এসেছিলে বলে,
আমরা আছি বেঁচে।
স্বাধীনতা তুমি না এলে
আমাদের চিহ্ন যেত মুছে।
স্বাধীনতা তুমি এনে দিলে
সোনার বাংলাদেশ।
স্বাধীনতা মানে হলো
মুক্ত পরিবেশ।
স্বাধীনতা তুমি রক্তিম সূর্য্য
উদিত হয়েছে বেশ।
স্বাধীনতা তুমি যাবে না অস্ত
আলোকিত করবে দেশ।
স্বাধীনতা তোমার মৃত্যু নেই
বাঁচবেই চিরকাল।
স্বাধীনতা তোমার সঙ্গে আছে,
দামাল ছেলের দল।
স্বাধীনতা তুমি আমার
বাংলা মায়ের অলংকার।
স্বাধীনতা তোমার জন্যে
আমার বাংলা হলো সোনার।
স্বাধীনতা তোমার ডাকে জীবন দিল
বীর বাঙালির দল।
স্বাধীনতা তোমার হাতে বিজয় নিশান,
উড়বে চিরকাল।