পাইকগাছা সংবাদ ॥ শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের কমিটি গঠন। সভাপতি বজলু, সম্পাদক আলাউদ্দীন


502 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা সংবাদ ॥ শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের কমিটি গঠন। সভাপতি বজলু, সম্পাদক আলাউদ্দীন
আগস্ট ২০, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা :
পাইকগাছা পৌরসভার শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের কমিটি গঠণ করা হয়েছে। কমিটি গঠণের লক্ষে বুধবার সন্ধ্যায় সরল বাজার চত্ত্বরে বজলুর রহমান গাজীর সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরকে প্রধান করে ৭ সদস্যের উপদেষ্টা পরিষদ ও বজলুর রহমান গাজীকে সভাপতি এবং আলাউদ্দীন গাজীকে সম্পাদক করে ২৫ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি গঠণ করা হয়। উপদেষ্টা পরিষদের অন্যান্যরা হলেন, সাংবাদিক এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, কাউন্সিলর ইদ্রিস আলী গাজী, অহেদ আলী গাজী, মুনছুর আলী ও প্রেমদাশ। কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যান্যরা হলেন, সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদ গোলদার, লুৎফর রহমান সরদার, মোক্তার আলী গাজী, যুগ্ম সম্পাদক মোমিন সরদার, কোষাধ্যক্ষ নজরুল গোলদার, সাংগঠনিক সম্পাদক রহমত আলী গাজী, দপ্তর সম্পাদক জিয়াউর রহমান, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল বারেক গাজী, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোস্তফা সরদার, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক কবিতা রাণী দাশ, সদস্য ইসলাম মোড়ল, শফিকুল ইসলাম, শহিদুল গোলদার, ভাজন গোলদার, লিটন শেখ, আকতার গোলদার, আলেক সানা, বাসুদেব দাশ, বিশ্বনাথ দাশ, রুহুল আমিন সরদার ও বিধান দাশ।
##

দু’সহোদরসহ ৮ ব্যক্তিকে জেল জরিমানা
পাইকগাছা প্রতিনিধি :
পাইকগাছায় চিংড়িতে অপদ্রব্য পুষ ও কম্পিউটারে অশ্লীল ছবি রাখার অভিযোগে দু’সহোদরসহ ৮ ব্যক্তিকে জেল জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ কবিরউদ্দীন অভিযান চালিয়ে চিংড়িতে অপদ্রব্য পুষ করার অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে উপজেলার শ্রীকন্ঠপুর গ্রামের কেসমত সরদারের দু’ছেলে রবিউল ইসলাম ও শহিদুল ইসলামকে প্রত্যেককে ৪ মাসের জেল ও ৫ হাজার টাকা করে এবং কর্মচারী জহুরা খাতুনকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অপরদিকে কম্পিউটারে অশ্লীল ছবি রাখার অভিযোগে জিরো পয়েন্ট এলাকায় অভিযান চালিয়ে মনোহরের ছেলে অখিল কুমারকে ১০ হাজার, মৃত আলহাজ্ব মোহাম্মদ আলী গাজীর ছেলে বি.এম. মারুফ বিল্লাহ, ছাত্তার মাইকের ছেলে সোহাগ সানা, রবীন্দ্রনাথের ছেলে কিংকর মন্ডল ও নিত্যানন্দ ব্যানার্জীর ছেলে চন্দন ব্যানার্জী প্রত্যেককে ৫ হাজার করে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা এস,এম,এ রাসেল, উপজেলা স্যানিটারী ইন্সপেক্টর উদয় মন্ডল ও ক্ষেত্র সহকারী সুজিত রঞ্জন মন্ডল।