পাইকগাছা সংবাদ ॥ সাবেক ইউএনও মনজুর কাদির প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নতুন ডিজি


364 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা সংবাদ ॥ সাবেক ইউএনও মনজুর কাদির প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নতুন ডিজি
ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক (ডিজি) হয়েছেন পাইকগাছার সাবেক ইউএনও ড. এ এফ এম মনজুর কাদির। রাষ্ট্রপতির সম্মতিক্রমে বুধবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে মনজুর কাদিরকে মহাপরিচালক পদে মনোনীত করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এরআগে তিনি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অতিরিক্ত সচিব (বিদ্যালয় শাখা) হিসেবে সুনামের সঙ্গে ৩ বছর দায়িত্ব পালন করেন।

মনজুর কাদিরের জন্মস্থান রংপুরে। রংপুর কারমাইমেল কলেজ থেকে এইচএসসি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএসসি পাস করে ১৯৮৮ সালে সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে চাকুরিতে যোগদান করেন। চাকুরিরত অবস্থায় তিনি ভারত থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি পাবনায় জেলা প্রশাসক, রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর মহাপরিচালক, লোক প্রশাসনের অধিদপ্তরের পরিচালক, জাতীয় গৃহায়ন ও গণর্পূত মন্ত্রণালয়ের আইন উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। চলতি মাসের মাঝামাঝি সময়ে তাকে সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়। উল্লেখ্য, এএফএম মনজুর কাদির চাকুরির শুরুতে পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসাবে দক্ষতা ও সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেন। তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী একজন সৎ কর্মকর্তা। কর্মরত থাকা অবস্থায় তিনি কখনো অপশক্তির কাছে মাথানত করেননি। স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির কাছে কখনো আপোস করেননি। এলাকার উন্নয়নে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি সংরক্ষণে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে শহীদ স্মৃতি স্তম্ভ স্থাপনসহ মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে নানামূখী কাজ করেন। তিনি তৎকালীন সময়ে স্বাধীনতা বিরোধী পক্ষের নানা প্রতিবন্ধকতার মধ্যদিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন ও সততাই অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন। এলাকার মানুষ আজও মনজুর কাদিরের সততার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে। এলাকার প্রতিটি মানুষের কাছে আজও তিনি প্রিয় একজন কর্মকর্তা। তিনি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মত গুরুত্বপূর্ণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক নিয়োগ পাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে মনজুর কাদিরকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন পাইকগাছার সর্বস্তরের মানুষ।

#

পাইকগাছায় উজ্জ্বল স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী খেলায় টাইগার স্পোর্টিং ক্লাবের জয়

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছায় উজ্জ্বল স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী খেলায় কমলাপুর ক্রিকেট একাদশকে ৭ রানে পরাজিত করে দেবদুয়ার ডিএসপি টাইগার স্পোর্টিং ক্লাব জয় পেয়েছে। শুক্রবার সকালে পাইকগাছা সরকারি কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত খেলায় টসে জিতে কমলাপুর ক্রিকেট একাদশ ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। কমলাপুর নির্ধারিত ২৫ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৬৩ রান সংগ্রহ করে। জবাবে ২২ ওভার ৩ বলে সবকটি উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষে পৌছে যায় টাইগার স্পোর্টিং ক্লাব ক্রিকেট একাদশ। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হয় টাইগার স্পোর্টিং ক্লাবের অলরাউন্ডার আফরাইন খলিল। পাইকগাছা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ২০০৩ ব্যাচ (ফ্রেন্ড ফেডারেশন) সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত কলেজ ছাত্র উজ্জ্বল স্মরণে এ টুর্নামেন্টের আয়োজন করে। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর। উদ্বোধক ছিলেন, নিহত উজ্জ্বলের পিতা অনাথ বন্ধু সরদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন, পাইকগাছা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, প্রাক্তন অধ্যক্ষ রমেন্দ্রনাথ সরকার, আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডঃ অজিত কুমার মন্ডল, আওয়ামী লীগনেতা আনোয়ার ইকবাল মন্টু, জিএম ইকরামুল ইসলাম, শিহাব উদ্দীন ফিরোজ বুলু, কাউন্সিলর শেখ মাহাবুবর রহমান রনজু, এসএম তৈয়েবুর রহমান, রবি শংকর মন্ডল, প্রাক্তন শিক্ষক অখিল কুমার সরকার, শেখ আব্দুল আজিজ, পাইকগাছা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুল আজিজ, যুগ্ম-সম্পাদক এন ইসলাম সাগর, নিহত উজ্জ্বলের ভাই টুটুল সরদার ও শ্রীকান্ত সানা। ধারাভাষ্যে ছিলেন, এ্যাডঃ মঞ্জুরুল ইসলাম ও রাহাত। খেলাটি পাইকগাছা ক্যাবল নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি কয়রা ও কপিলমুনি ক্রিকেট একাদশের মধ্যে টুর্নামেন্টের পরবর্তী খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

#

সভাপতি-আজাহার, সম্পাদক-রনজু
পাইকগাছা বনানী সংঘের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছা বনানী সংঘের কার্যনির্বাহী পরিষদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে অধ্যাপক জিএমএম আজাহারুল ইসলাম সভাপতি ও কাউন্সিলর শেখ মাহাবুবর রহমান রনজু সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে কোন পদের বিপরিতে একাধিক প্রার্থী না থাকায় ৩৫ সদস্যের পরিষদের সকল প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। পরিষদের অন্যান্যরা হলেন, সহ-সভাপতি শেখ শহীদুল ইসলাম বাবলু ও এটিএ মনিরুজ্জামান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক এস রোহতাব উদ্দীন আহম্মেদ, সহ-সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মোঃ আব্দুল আজিজ, কোষাধ্যক্ষ সুভাষ চন্দ্র সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক এসএম আব্দুস সামাদ, সহ-ক্রীড়া সম্পাদক সুবোধ চক্রবর্তী, সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক এ্যাডঃ শফিকুল ইসলাম কচি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক জিএম আব্দুল খালেক, সমাজ কল্যান সম্পাদক সাংবাদিক পূর্ণ চন্দ্র মন্ডল, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডঃ পঙ্কজ কুমার ধর, পাঠাগার সম্পাদক রফিকুল ইসলাম গাজী, প্রচার সম্পাদক প্রনব সরদার, প্রকাশনা সম্পাদক জিএম শাহাদাৎ হোসেন, দপ্তর সম্পাদক জামিনুর ইসলাম, সদস্য উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডঃ স ম বাবর আলী, মনোহর চন্দ্র সানা, শেখ আনিছুর রহমান মুক্ত, এ্যাডঃ মোর্তজা জামান আলমগীর রুলু, জিএম ইমান আলী, ডাঃ নরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস, অধ্যাপক নাথ বিষ্ণুপদ, এ্যাডঃ এটিএম নাদিরুজ্জামান, এ্যাডঃ মোজাফফর হাসান, সুনীল কুমার মন্ডল, প্যানেল মেয়র এসএম ইমদাদুল হক, জিএ রশীদ, অনিল কুমার মন্ডল, মুক্তিযোদ্ধা সরদার মোহাম্মদ নাজিম উদ্দীন, এসএম সেলিম রেজা লাকি, নিজাম উদ্দীন, গাজী আব্দুস সামাদ ও জিএম রফিকুল ইসলাম। নির্বাচন কমিশন ছিলেন,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ। কমিশনের সদস্য ছিলেন অধ্যাপক জা.আ.ম আব্দুল হাকিম ও শিক্ষক দিলীপ কুমার দাশ। শনিবার আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে বিকাল ৩টায় আয়োজিত বার্ষিক সম্মেলন ও সাধারণ সভায় নবনির্বাচিত পরিষদের নিকট দায়িত্ব হস্তান্তর করা হবে বলে সংঘের সভাপতি জানিয়েছেন।

#

পাইকগাছায় গাঁজাসহ আটক-৬

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছায় গাঁজাসহ ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন, বাতিখালী গ্রামের মৃত সুভাষ ঘরামীর ছেলে রাহুল ঘরামী (২৬), আশুতোষ মন্ডলের ছেলে অপূর্ব মন্ডল (২৭), আজাহার আলীর ছেলে হাফিজ আল জাবির (৩৩), শামছুর রহমানের ছেলে রেজাউল করিম (২৫), মৃত রাজ্জাক সানার ছেলে শাকিল আহম্মেদ (২৬) ও সুকুমার ঢালীর ছেলে ধর্মেন্দ্র সরকার (২৭)। ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, থানার এসআই আবু সাঈদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে পৌর সদরের স্মৃতি সৌধ সংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩০গ্রাম গাঁজা সহ তাদেরকে হাতেনাতে আটক করে। এ ঘটনায় থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। যার নং-৩৩, তাং ৩১/০১/১৯ইং।

#