পাইকগাছা সংবাদ ॥ সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের জন্মজয়ন্তী উদযাপিত


110 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা সংবাদ ॥ সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের জন্মজয়ন্তী উদযাপিত
নভেম্বর ৪, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছায় সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের ১৩৮তম জন্মজয়ন্তী উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শিব্সা সাহিত্য অঙ্গনের উদ্যোগে সোমবার বিকালে রোজ বাড কিন্ডার গার্টেন স্কুল মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। শিব্সা সাহিত্য অঙ্গনের সভাপতি সুরাইয়া বানু ডলির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না। বিশেষ অতিথি ছিলেন, পাইকগাছা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, ফসিয়ার রহমান মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম, প্রাক্তন অধ্যক্ষ রমেন্দ্রনাথ সরকার, প্রধান শিক্ষক রহিমা আক্তার শম্পা, অনিতা রানী মন্ডল, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক মোর্তজা মুজিব বনি ও যুবলীগনেতা এমএম আজিজুল হাকিম। প্রভাষক বজলুর রহমানের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, প্যানেল মেয়র আসমা আহমেদ, পাইকগাছা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুল আজিজ, হাটার সাথী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেন, মমতাজ পারভীন মিনু, আফরোজা পারভীন শিল্পী, প্রভাষক তরুণ কান্তি মন্ডল, শিক্ষক অসীম দাশ, আলতাফ হোসেন মুকুল, মনালিসা, শামছুল আরেফিন লাকি, যুবলীগনেতা আব্দুল গফফার মোড়ল, সাইফুল ইসলাম, ছাত্রলীগনেতা রায়হান পারভেজ রনি ও রূপালী সরদার। অনুষ্ঠানে বক্তারা সু-সাহিত্যিক কাজী ইমদাদুল হকের জন্তজয়ন্তী অনুষ্ঠান সরকারিভাবে পালন ও স্মৃতি বিজড়িত স্থান সংরক্ষণের দাবী জানান।

#

পাইকগাছার উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও ও ওসি’র সাথে হাঁটার সাথী সংগঠনের শুভেচ্ছা ও মতবিনিময়

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মোহাম্মদ আলী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না ও ওসি এমদাদুল হক শেখের সাথে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করেছেন স্বাস্থ্য সচেতনামূলক সংগঠন হাঁটার সাথীর নেতৃবৃন্দ। সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সোমবার সকালে প্রথমে ইউএনও পরে ওসি এবং সবশেষে উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে মতবিনিময় করেন। এ সময় তাদেরকে টি-শার্ট প্রদান ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানান হাঁটার সাথী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লিপিকা ঢালী, হাঁটার সাথী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেন, প্রধান শিক্ষক অনিতা রানী মন্ডল, ওয়ালটনের ম্যানেজার অমিত সাহা, যুবলীগনেতা এমএম আজিজুল হাকিম, সাংবাদিক আব্দুল আজিজ, শামছুল আরেফিন লাকি, জিএম শুকুরুজ্জামান, মৃত্যুঞ্জয় সরদার, আব্দুর রাজ্জাক বুলি, আব্দুল গফফার মোড়ল, শিকদার আবু হানিফ সোহেল, ডালিম সরদার ও ছাত্রলীগনেতা রায়হান পারভেজ রনি।

#

পাইকগাছা পৌর এলাকার নবনির্মিত মৎস্য আড়ৎদারী মার্কেটের কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছা পৌর এলাকায় অনুমোদন বিহীনভাবে নবনির্মিত মৎস্য মার্কেটের কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না। তিনি সোমবার দুপুরে শুনানীনান্তে বৈধ কাগজপত্র না থাকায় এ নির্দেশনা দেন। উল্লেখ্য, পৌরসভার ঐতিহ্যবাহী মৎস্য আড়ৎদারী সমবায় সমিতির বহিষ্কৃত সদস্য ব্যবসায়ী বজলুর রহমান পুরাতন মার্কেটের ব্যবসায়ীদের ও সমিতির নিয়মনীতি উপেক্ষা করে পৌর এলাকার শিববাটী ব্রিজ সংলগ্ন সড়কের পাশে কৃষি জমির ওপর সম্প্রতি একটি মৎস্য আড়ৎদারী মার্কেট নির্মাণ করেছে। মার্কেটটি অনুমোদন ছাড়াই অবৈধভাবে নির্মাণ করা হয়েছে এবং মার্কেটটি চালু হলে পুরাতন মার্কেট এবং মার্কেটের শত শত ব্যবসায়ী ক্ষতিগ্রস্থ হবে এমন আশংকায় পুরাতন মার্কেটের ব্যবসায়ীরা নতুন মার্কেটটি বন্ধের দাবীতে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়, কর্মবিরতি, মানববন্ধন কর্মসূচী পালন সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ ও স্মারকলিপি প্রদান করেন। এ ধরণের একটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না সোমবার দু’পক্ষকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে তার কার্যালয়ে ডাকেন। এদিন দু’পক্ষ ও তাদের লোকজন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে গিয়ে তাদের অবস্থান তুলে ধরেন। এ সময় নবনির্মিত মার্কেটের ব্যবসায়ী ও তাদের আইনজীবী বৈধ কোন কাগজপত্র দেখাতে না পারায় ইউএনও জুলিয়া সুকায়না মঙ্গলবার থেকে নবনির্মিত মৎস্য মার্কেটের সকল কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশনা দেন। ইউএনও জুলিয়া সুকায়না বলেন, কোন প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা আমাদের লক্ষ নয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠান করার ক্ষেত্রে আইনগত বিষয়টি সবাইকে অনুসরণ করা উচিত। তিনি বলেন, অনুমোদন না নিয়ে কিংবা বৈধ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সম্পন্ন না করে মার্কেটে বিক্রয় কার্যক্রম শুরু করা সঠিক হয়নি। তিনি প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সম্পন্ন করার আগ পর্যন্ত মার্কেটের মাছ বিক্রি সহ সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার জন্য মার্কেটের ব্যবসায়ীবৃন্দকে নির্দেশ দেন। এ নির্দেশনা অমান্য করে কার্যক্রম চলমান থাকলে পরবর্তীতে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা সহ মার্কেট ও মার্কেটের ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি সবাইকে অবগত করেন।

#