পাইকগাছা সংবাদ ॥ সোলাদানায় নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী পথসভা অনুষ্ঠিত


321 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা সংবাদ ॥  সোলাদানায় নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী পথসভা অনুষ্ঠিত
মার্চ ১৮, ২০১৬ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥
পাইকগাছায় সোলাদানা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মান্নান গাজীর নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকালে সোলাদানা বাজারস্থ ইউনিয়ন ভূমি অফিস মাঠে আ’লীগনেতা মোহাম্মদ আলী গাজীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পথসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য ও এমপি পুত্র শেখ মনিরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, আ’লীগনেতা কুমুদ রঞ্জন ঢালী, বিজন বিহারী সরকার, চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মান্নান গাজী, পতিত পাবন রায়, নির্মল কান্তি ঢালী, জেলা যুবলীগনেতা শেখ আনিছুর রহমান মুক্ত, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এসএম শামছুর রহমান। বক্তব্য রাখেন এ্যাডঃ শিবু প্রসাদ সরকার, গোলক চন্দ্র মন্ডল, শেখ মাসুদুর রহমান, শেখ আলাউদ্দীন, শেখ জিয়াদুল ইসলাম, পঞ্চানন সানা, আবু সাঈদ কালাই, বিমল কৃষ্ণ সরকার, প্রভাষক মাসুদুর রহমান মন্টু, শেখ তৌহিদ হোসেন তাজ, আসিফ ইকবাল রনি, আব্দুর রউফ বিশ্বাস, কোনা মিস্ত্রী, বিপ্লব ঘোষ, নূরু গাজী ও মিজান খাঁ। সভায় বক্তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী ও বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে আ’লীগ মনোনীত আব্দুল মান্নান গাজীর নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে দলীয় নেতৃবৃন্দ ও এলাকাবাসীর প্রতি আহবান জানান।
##

পাইকগাছা পৌরসভা প্রথম শ্রেণীতে উন্নিত; সরকার, এমপি ও মেয়রকে পৌরবাসীর অভিনন্দন
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥
সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে দ্বিতীয় শ্রেণী থেকে প্রথম শ্রেণীর মর্যাদা পেতে চলেছে ঐতিহ্যবাহী পাইকগাছা পৌরসভা। ইতোমধ্যে প্রথম শ্রেণী উন্নতি করণের সকল প্রক্রীয়া সম্পন্ন হয়েছে এবং এ সংক্রান্ত পরিপত্র দু’একদিনের মধ্যে হাতে পাওয়া যাবে বলে পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর নিশ্চিত করেছেন। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার পর পৌরবাসীর মধ্যে খুশির আমেজ বিরাজ করছে। অবশেষে প্রথম শ্রেণীতে উন্নতি হওয়ায় বর্তমান সরকার, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর সহ পৌর পরিষদকে অভিনন্দন জানিয়েছেন পৌরবাসী।
উল্লেখ্য ১৯৯৭ সালের ১ ফেব্র“য়ারী বর্তমান সংসদ সদস্য এ্যাডঃ শেখ মোঃ নূরুল হকের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় তৎকালীন গদাইপুর ইউনিয়ন ও উপজেলা সদরের আংশিক এলাকা নিয়ে খুলনা জেলার প্রথম পৌরসভা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয় পাইকগাছা পৌরসভা। প্রতিষ্ঠার পর পৌরসভার কার্যক্রম কিছুটা সিমিত থাকলেও ২০১১ সালের ১৩ জানুয়ারীতে বিশাল ভোটের ব্যবধানে মোঃ সেলিম জাহাঙ্গীর মেয়র নির্বাচিত হয়ে পরিষদের অন্যান্য সদস্যদের সহযোগিতায় পৌরসভার ঝিমিয়ে পড়া উন্নয়ন কর্মকান্ডকে গতিশীল করতে সর্বাত্বক প্রচেষ্টা চালিয়ে যান। কয়েক বছরের মধ্যে লবণ অধ্যুষিত পৌর এলাকার পানি সমস্যার সমাধান, অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও শতশত সড়কবাতি স্থাপন করার মাধ্যমে পাল্টেদেন পৌরসভার উন্নয়নের চিত্র। যার ফলে গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর সহ বর্তমান পরিষদের শতভাগ সদস্যবৃন্দ বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়। মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরের কর্মকান্ড শুধু অবকাঠামোগত উন্নয়নের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল না। তিনি সমাজসেবা মূলক কর্মকান্ডের পাশাপাশি তৃতীয় শ্রেণীর পৌরসভাকে ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে দ্বিতীয় শ্রেণীতে উন্নতি করেন। যার আড়াই বছরের মাথায় দ্বিতীয় শ্রেণী থেকে প্রথম শ্রেণীর মর্যাদা পেতে চলেছে ঐতিহ্যবাহী পাইকগাছা পৌরসভা।  এ ব্যাপারে পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর জানান, ইতোমধ্যে প্রথম শ্রেণী উন্নতি করণে সকল প্রক্রীয়া সম্পন্ন হয়েছে। আগামী দু’একদিনের মধ্যে এ সংক্রান্ত পরিপত্র বা চিঠি হাতে পাওয়া যাবে বলে তিনি জানান। মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর বলেন পরিষদের সকল সদস্য ও সর্বপরী পৌরবাসীর সহযোগিতা না হলে এতো বড় অর্জন সম্ভব হতো না। চিঠি পাওয়ার পর উৎসব মূখর পরিবেশে আনুষ্ঠানিক ভাবে পৌরবাসীর মাঝে তা হস্তান্তর করা হবে বলে আলোকিত পৌরসভার মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর জানান। স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পৌরসভার প্রতিষ্ঠাতা সংসদ সদস্য এ্যাডঃ শেখ মোঃ নূরুল হক জানান, আওয়ামীলীগ সরকার দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের উন্নয়ন বান্ধব সরকার তার বাস্তব দৃষ্টান্ত পাইকগাছা পৌরসভা। তিনি বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের সময় পাইকগাছা পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয় যা একই সরকারের সময় দ্বিতীয় শ্রেণীতে উন্নতি হয় এবং কিছু দিন পূর্বে যা প্রথম শ্রেণীতে উন্নতি হয়েছে। তিনি পাইকগাছা পৌরসভাকে প্রথম শ্রেণীতে উন্নতি করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
##
পাইকগাছায় ১ হাজার ২শত পোলিং অফিসারকে প্রশিক্ষণ প্রদান
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥
পাইকগাছায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে ১ হাজার ২শত পোলিং অফিসারকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। আগামী ২২ মার্চ উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোট প্রদান, ভোট গ্রহণ, ভোট গননা ও আইন শৃংখলা সংক্রান্ত দিন ব্যাপী এক প্রশিক্ষণ কর্মসূচী শুক্রবার সকালে পাইকগাছা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রশিক্ষণ প্রদান করেন, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ নাজমুল হক, রিটার্ণিং অফিসার মোঃ হযরত আলী, এএইচএম জাহাঙ্গীর আলম, এএসএম রাসেল, এফএম সেলিম আখতার, দেবাশীষ সরদার, ওসি আশরাফ হোসেন ও মেহেরপুর, গাইবান্ধা ও রাজবাড়ীর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা। প্রশিক্ষণে নির্বাচনী কাজে নিয়োগ প্রাপ্ত ১২’শ পোলিং অফিসার অংশগ্রহণ করেন।