পাকিস্তানের উন্নয়নে চীনের ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ


79 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাকিস্তানের উন্নয়নে চীনের ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ
সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

পাকিস্তানের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পে চীন ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করতে চলেছে। এ কথা জানিয়েছেন পাকিস্তানে চিনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও জিং। তিনি ইসলামাবাদ উইমেন্স চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিতে এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেছেন।

এর পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, চীন-পাকিস্তান ইকোনমিক করিডর (সিপেক) কাজ তৈরির কাজও সন্তোষজনক গতিতে এগোচ্ছে। এ ছাড়া চীন-পাকিস্তান ফ্রি ট্রেড এগ্রিমেন্ট (সিপিএফটিএ)-এর দ্বিতীয় ধাপের কাজ খুব তাড়াতাড়ি শুরু হয়ে যাবে। অক্টোবরের মধ্যে তার চূড়ান্ত রূপরেখা তৈরি হয়ে যাবে, তার পর থেকেই চীনে পাকিস্তানের রপ্তানিকৃত বস্তু ও সামগ্রীতে আর কোনও শুল্ক লাগবে না। এমনকি, কৃষিজাত পণ্য ও সি ফুডের ক্ষেত্রেও তা লাগবে না।
জিংয়ের কথায়, ‘এই খোলা বাজার পেলে পাকিস্তানের আমদানি ৫০ কোটি ডলার বাড়বে, যা দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্যে যে বিশাল ব্যবধান রয়েছে, তা উল্লেখযোগ্য ভাবে কমিয়ে দেবে।’

চীনা রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, চীনা বিজনেস উইমেন-দের নভেম্বরে হতে চলা ইসলামাবাদ এক্সপো-য় আমন্ত্রণ জানানো হবে। তার ফলে দু’দেশের বাণিজ্যিক মহলে নেটওয়ার্কিং-ও বাড়বে। অন্য দিকে, পাকিস্তানের মহিলারাও চীনে যাবেন ও সেখানে বাণিজ্যের ক্ষেত্রে কী সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যায়, তাও দেখবেন।