পাচারকালে পশ্চিমবঙ্গে ৫ বাংলাদেশি আটক


455 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাচারকালে পশ্চিমবঙ্গে ৫ বাংলাদেশি আটক
সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৫ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ভারতের মুম্বাইয়ে পাচারের সময় পশ্চিমবঙ্গে তিনজন নারীসহ ৫ বাংলাদেশিকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৭০০ রুপি এবং সিমসহ তিনটি মোবাইল জব্দ করা হয়। আটক প্রত্যেকেরই বয়স ১৮ থেকে ৩২ এর মধ্যে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বনগাঁ থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- খুলনা জেলার বললামপুরের বাসিন্দা টুলু রোবুল শেখ (৩২), নড়াইল জেলার খারারিয়ার বাসিন্দা আলি শেখ (১৮), খুলনার কালীবাড়ির বাসিন্দা মারুফা বেগম (১৯) এবং ওই জেলারই মথুরাপুরের বাসিন্দা রাফিয়া খাতুন (২৪) এবং যশোরের গোপীনাথপুরের লাবনি বেগম (১৯)।

আটক হওয়া ব্যক্তিদের কাছ থেকে ১৭০০ রুপি এবং সিমসহ তিনটি মোবাইল জব্দ করা হয়েছে। তাদের কাছে ভারতে প্রবেশের কোন বৈধ কাগজপত্র ছিল না বলেও জানা গেছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার দুপুরে পশ্চিমবঙ্গ-বাংলাদেশ সীমান্ত টপকে উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বনগাঁতে প্রবেশ করে ওই পাঁচ জন। এরপর বনগাঁ থেকে ডিএন৪৪ নম্বর বাসে করে কলকাতার দিকে আসছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে জেলার হাবড়াতে ওই বাসটি পৌঁছেন মাত্রই বাসটিতে অভিযান চালায় হাবড়া থানার পুলিশ। এরপর ওই বাস থেকে আটক করা হয় পাঁচ বাংলাদেশিকে।

পুলিশ আরও জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে টুলু রোবুল শেখই বাকীদের কাজের লোভ দেখিয়ে মুম্বাইয়ের উদ্যেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিল জানা গেছে। আজই কলকাতা থেকে মুম্বাইগামী ট্রেনে তুলে দেওয়ার জন্য কলকাতার দিকে যাচ্ছিল  টুলু। এ-কাজের জন্য প্রতি ব্যক্তি পিছু চার হাজার রুপি করে নিয়েছিল বোবুল শেখ। যদিও আটক বাংলাদেশিদের বক্তব্য কতটা সত্যি তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আগামীকাল আদালতে তোলা হবে তাদের।—সুত্র:- বাংলাদেশ প্রতিদিন।