পাটকেলঘাটায় নাশকতাসহ একাধিক মামলার আসামী বিলু বেপরোয়া


136 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাটকেলঘাটায় নাশকতাসহ একাধিক মামলার আসামী বিলু বেপরোয়া
জুন ২০, ২০২১ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান ::

নাশকতাসহ একাধিক মামলার আসামী সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটার বড়কাশিপুর গ্রামের বেল্লাল হোসেন বিলু বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। ব্যাংক ও বিভিন্ন ব্যাবসায়ীদের টাকা আত্মসাত ও নাশকতাসহ বিভিন্ন অপরাধে ইতিমধ্যে তার নামে ৬ টি মামলা হয়েছে।
ঘটনার বিবরনে জানা যায়, পাটকেলঘাটা বড়কাশিপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রহিম শেখের ছেলে ও খলিশখালী দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক বেল্লাল হোসেন বিলু দীর্ঘ দিন এলাকার সহজ সরল মানুষ ও ব্যাবসায়ীদের সাথে প্রতারনা করে তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মালামাল নিয়ে পরে টাকা দেবেন বলে পাওনাদারদের চেক দেন। কিন্তু তার ব্যাংক একাউন্টে কোন টাকা নাই। তিনি ইসলামি ব্যাংক সাতক্ষীরা সদর শাখা থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা নিয়ে ঋন নিয়ে তা পরিশোধ করেন নাই। ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে তিনি তিনটি চেকও প্রদান করেন। এতে টাকা না থাকায় ইসলামি ব্যাংকের পক্ষে ইমদাদুল হক বাদী হয়ে কোর্টে মামলাও করেছেন। এছাড়া সাতক্ষীরা শহরের কাটিয়া সরকার পাড়ার আব্দুস সালামের ছেলে ব্যাবসায়ী মাসুদের নিকট থেকে মৎস্য ঘেরের ও পুকুরের মাছের খাদ্য কিনে সোনালী ব্যাংক খলিশখালী শাখার একলক্ষ তেষট্টি হাজার টাকার চেক দেন বিলু। কিন্তু ব্যাংকে টাকা না থাকায় চেক ডিজঅনার হয়। তিনি নিরুপায় হয়ে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েও টাকা পাননি। কোন উপায় না পেয়ে তিনি বাদী হয়ে মাদ্রাসা শিক্ষক বেল্লাল হোসেন বিলুকে আসামী করে কোর্টে মামলা দায়ের করেছে। মামলাটিতে সমনও দেয়া হয়েছে।
স্থাণীয় এলাকাবাসী জানান, বেল্লালল হোসেন বিলু একটি ইসলামী সংগঠনের সক্রিয় সদস্য। পাটকেলঘাটা থানায় তার বিরুদ্ধে পুলিশের সরকারী কাজে বাঁধা দেয়া, পুলিশ সদস্যকে আহত করা ও রাষ্ট্রবিরোধী কাজ করায় তার নামে পাটকেলঘাটা থানাসহ বিভিন্ন স্থানে ৬টি মামলা রয়েছে।
ব্যবসায়ী মাসুদ জানান, তিনি মামলা করার আগে ওই প্রতারকের গ্রামের বাড়ীতে ১০ বার গিয়েছেন। পাটকেলঘাটা বাজার ব্যবসায়ী সমিতির কাছেও ঘটনাটি বলেছেন। খলিশখালী দাখিল মাদ্রাসার সুপারকেও বিষয়টি বললেও তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পান না। এলাকাবাসী ও ব্যাবসায়ীরা এই প্রতারকের বিচারের দাবী জানিয়েছেন।

#