পাটকেলঘাটায় পাচার চক্রের হোতা মফিজুলের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ ! পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা


371 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাটকেলঘাটায় পাচার চক্রের হোতা মফিজুলের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ ! পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা
নভেম্বর ৩, ২০১৫ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কামরুজ্জামান মোড়ল :
পাটকেলঘাটায় নারী ও বিদেশী ডলার পাচারচক্রের হোতা, চরমপন্থী দলের ক্যাডার, ম্যাগনেট, সীমানা পিলার ও নকল সোনার পুতুল পাচারকারী মফিজুল গাজীর অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। তার নানাবিধ অপকর্মের অভিযোগ স্থানীয় থানা পুলিশের কাছে দিয়েও কোন প্রতিকার না পেয়ে ভুক্তভোগীরা হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েছে।

ভুক্তভোগীদের লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, পাটকেলঘাটা থানার গনেশপুর গ্রামের কদু গাজীর পুত্র বহু অপকর্মের হোতা মফিজুল গাজী (৪৫) দীর্ঘদিন ঘরে এলাকায় চাঁদাবাজি, ম্যাগনের, সীমানা পিলার, নারী ও বিদেশী মুদ্রা পাচার করে আসছে। তার বিরুদ্ধে স্থানীয় ইউপি মেম্বর খায়রুল কাগুজী, আওয়ামীলীগ নেতা আফছার উদ্দীন, মিজানুর সরদার, আক্তার হোসেন সহ অর্ধশতাধিক গ্রামবাসীর অভিযোগ, মফিজুল দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থী দলের পরিচয়ে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে চলেছে। এলাকার বিভিন্ন মৎস্য ঘেরে ও নিরীহ ব্যবসায়ীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজি করে আসছে। এছাড়া নকল সোনার পুতুলসহ নানাবিধ অপকর্ম চালিয়ে নিরীহ মানুষদের হয়রানী করে আসছে।

গনেশপুর গ্রামের যুবলীগ নেতা ফজলুর রহমান জানায়, সন্ত্রাসী মফিজুলের ভয়ে এলাকায় মানুষ সবসময় তটস্থ থাকে। তার বিরুদ্ধে থানা পুলিশের কাছে বারবার অভিযোগ করলেও অঞ্জাত কারণে পুলিশ আইনগত কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

ভুক্তভোগী কুমিরা গ্রামের মৃত শিবুপদ দাশের পুত্র ডেকোরেশন ব্যবসায়ী দূর্গাপদ দাশ গত মাস তিনেক পূর্বে প্রতারণার অভিযোগে পাটকেলঘাটা থানায় মফিজুলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে পুলিশ আইনগত কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় তিনি হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েন।

এদিকে, মফিজুলের প্রতারণার শিকার হয়ে চলতি বছরের ৯ সেপ্টেম্বর মাদারীপুর জেলার হাজরাপুর গ্রামের জলিল খার পুত্র রহিম খা বাদী হয়ে একটি অভিযোগ পাটকেলঘাটা থানায় দাখিল করেন। বিষয়টি খলিষখালী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ সহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ কয়েকদফায় সালিশ বৈঠক করেও অদ্যাবধি তার কোন সুরাহা না হওয়ায় তিনিও হতাশ।

এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

অভিযোগের বিষয়ে মফিজুল গাজীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান, আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ করা হয়েছে তা সঠিক নয়। একটি মহল আমাকে সামাজিক ভাবে হেয়পতিপন্ন করার চেষ্টা করছে।