পাটকেলঘাটায় পানের বরজ ভাংচুর করে জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ


471 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাটকেলঘাটায়  পানের বরজ ভাংচুর করে জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ
এপ্রিল ২১, ২০১৭ তালা
Print Friendly, PDF & Email

কামরুজ্জামান মোড়ল, পাটকেলঘাটা ::
পাটকেলঘাটায় প্রতিপক্ষরা আদালতের আদেশ অমান্য করে পানের বরজ ভাংচুর করে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে।  শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পাটকেলঘাটা রাঢ়ীপাড়া গ্রামে একটি বিরোধপূর্ণ জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টায়  প্রতিপক্ষরা

জমিতে যেয়ে  রোপনকৃত মেহগনি গাছ, নিমগাছসহ বিভিন্ন গাছের চারা কেটেদেয় এসময় জমিতে চাষকৃত পানের বরজ ভাংচুর করে । এতে প্রতিপক্ষের হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় কৃষক আব্দুর রউফ খাঁর   ৩ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন হয়।

ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিক কৃষক আব্দুর রউফ খাঁ সাংবাদিকেদের জানান,   রাঢ়ীপাড়া মৌজায়  এস, এ ৯৬৭ খতিয়ানে ৩৯১ দাগ এবং ২২০ খতিয়ানে ৩৯২ দাগে ২ একর ৬২শতকের মধ্যে পৈত্রিক ও খরিদ সূত্রে প্রাপ্ত  ১ একর ৪ শতক জমির মালিক তিনি।

ওই জমিতে পান চাষের পাশাপাশি জমির উপরে  মেহগনি গাছ, নিমগাছের চারা রোপন করে  দীর্ঘ বছর যাবৎ ভোগ দখলে রয়েছেন আব্দুর রউফ।

কিন্তু প্রতিপক্ষ মৃত: গোলাম আলি খা’র পুত্র রেজাউল, শফিকুল, রফিকুল, হাফিজুর খা’র নেতৃত্বে শুক্রবার সকালে ১০ /১৫ জন সন্ত্রাসী  গায়ের জোরে নালিশির জমির পানের বরজ গাছ-গাছালি কেটে প্রায় ৩ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি করে । এসময় ক্ষতিগ্রস্থ রউফ ও তার পরিবারের লোকজন বাধা দিতে গেলে জবর দখলকারীরা বেদম ভাবে মারপিঠ করে আহত করে ।

উল্লেখ্য এর আগেও প্রতিপক্ষ জবরদখলের পায়তারা করলে ভোগ দখলিকার আব্দুর রউফ খা বাদি হয়ে বিগত ২০১৬ ইং সালে ৭ সেপ্টম্বর  সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে কাঃ বিঃ ১৪৫ ধারা মতে ১০০৪ নং পিটিশন মামলা করেন।

এর আগে বিগত ২০১৫ সালে ৮ নভেম্বর সাতক্ষীরা সহকারী জজ আদালতে বিচার চেয়ে ১৫৪/১৫ নং আরো একটি মামলা দাখিল করেন । যা বর্তমান আদালতে বিচারাধীন ।

এঘটনায় জবরদখলকারী রেজাউলের দাবি পৈত্রিক সূত্রে নালিশি জমি তাদের প্রাপ্য থাকা সত্ত্বেয় তার চাচা পরসম্পদ লোভী আব্দুর রউফ দীর্ঘদিন নিজের দখলে রেখে তাদেরকে বঞ্চিত করেছেন । তার ভাই শফিকুল ইসলামের অভিযোগ নালিশি জমি নিয়ে একাধিকবার স্থানীয় ভাবে সালিশ হলেও তার চাচা তা মানেনা ।

এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থ আ: রউফ খা জানান , পৈত্রিক ও খরিদ সূত্রে প্রাপ্ত হয়ে আপোষ বন্টনের মাধ্যমে তিনি দীর্ঘ বছর ধরে শান্তিপূর্নভাবে ভোগদখলে ছিলেন।
##