পাটকেলঘাটায় বার্ডস সমাজ উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংস্থায় চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা । জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা


485 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাটকেলঘাটায় বার্ডস সমাজ উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংস্থায় চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা । জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা
আগস্ট ২৬, ২০১৫ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

মোঃ কামরুজ্জামান মোড়ল :
পাটকেলঘাটায় বার্ডস সমাজ উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংস্থা নামের ভূয়া এনজিও চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে শত শত বেকার যুবক ও মহিলাদের নিকট থেকে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে প্রতারিত চাকরী প্রার্থীরা জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

জানা গেছে, থানার কুমিরা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক অসীম দে’র ভাড়া বাড়ির নিচ তলায় একটি রুম ভাড়া নিয়ে জনৈক শেখ সেলিম নামের এক প্রতারক জেলা অফিসার সেজে সাতক্ষীরা জেলাধীন ৭ উপজেলার সকল ইউনিয়নের শূন্য পদে লোক নিয়োগের জন্য স্থানীয় পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। ঐ বিজ্ঞপ্তিতে জেলা প্রশাসকের স্থানীয় সরকার শাখার স্মারক মোতাবেক অনুমোদন রয়েছে বলে উল্লেখ করে। এরই প্রেক্ষিতে শত শত বেকার যুবক ও যুব মহিলারা চাকুরীর জন্য বিজ্ঞপ্তির শর্ত পূরণ সাপেক্ষে আবেদন পত্র জমা দেন।
বুধবার সকাল ১০ টায় যথারীতি নির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার পর চাকুরী প্রার্থী তালা উপজেলার কুমিরা ইউনিয়নের নোয়াকাটি গ্রামের সালামত সরদারের পুত্র একরামুল সরদার, কালীগঞ্জ উপজেলার ভাড়াশিমলা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর পুত্র শেখ মনিরুজ্জামান, সদর উপজেলার দহাকুলা গ্রামের সিরাজুল ইসলামের মেয়ে তানিয়া সুলতানা, মাগুরা গ্রামের আব্দুল বাকির মেয়ে ওবায়দা খাতুন, শিমুল বাড়িয়া গ্রামের মেহের আলীর পুত্র হাবিবুর রহমান, আশাশুনীর কাদাকাটি গ্রামের রমেশ মন্ডলের মেয়ে রতœা মন্ডল, শ্যামনগর উপজেলার ভেটখালী গ্রামের মোজাম্মেল হকের পুত্র আব্দুল মাজেদ, আশাশুনী বড়দলের সামাদ গাজীর পুত্র সাদ্দাম গাজী, একই গ্রামের হামিদ গাজীর পুত্র আব্দুর রহমান, শ্যামনগর উপজেলার দক্ষিণ আটুলিয়া গ্রামের রতিকান্তি বৈদ্যের পুত্র রামপ্রসাদ সহ নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিতে আসা অর্ধশত চাকুরী প্রার্থীর সাথে কথা হলে সকলেই অভিযোগ করে বলেন, প্রতারক জেলা কর্মকর্তা তাদের নিকট থেকে ৩-৪ শত টাকা করে হাতিয়ে নিয়েছে।

অনেকের অভিযোগ এর আগেও কয়েকবার এভাবে নিয়োগ দিয়ে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়। এপর্যন্ত ভূয়া এ সংস্থার কোন  লোক নিয়োগ দেয়া হয়নি। অফিসের দায়িত্বরত জেলা কর্মকর্তা হিসেবে জনৈক ব্যক্তি ছাড়া আর কাউকে খুজে পাওয়া যায়নি। যিনি জেলা অফিসার তিনি অফিস সহায়ক আবার তিনি নিয়োগ বোর্ডের সভাপতি। কথিত ঐ সংস্থার জেলার কর্মকর্তা শেখ সেলিম সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণা অব্যাহত রেখেছে। তথ্য অনুসন্ধান করে জানা গেছে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের স্থানীয় সরকার শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সহকারী কমিশনার বিবি খাদিজা স্বাক্ষরিত ৫ জুলাই’২০১৫ ইং তারিখের ৪২২ নং স্মারকের একটি চিঠি দেখিয়ে এসব অপকর্ম চালিয়ে আসছে। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুর রহমান এর কাছে জানতে চাওয়া হলে বার্ডস সমাজ উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংস্থা নামের কোন এনজিও আছে বলে তার জানা নেই বলে জানান। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, জেলা প্রশাসকের দপ্তর হতে একটি চিঠি নিয়ে আমার কাছে আসছিল কিন্তু আমি তার কোন অনুমোদন করি নাই। সংস্থাটি নিয়োগ বা অন্যকোন কর্মকান্ড করলে সেটা অবৈধ। কোন ভুক্তভোগী লিখিতভাবে জানাইলে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে তিনি জানান।