পানিসীমায় আগ্রাসন রুখতেই ইউক্রেনের জাহাজ আটক : রাশিয়া


251 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পানিসীমায় আগ্রাসন রুখতেই ইউক্রেনের জাহাজ আটক : রাশিয়া
নভেম্বর ২৭, ২০১৮ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
ক্রিমিয়া উপকূল থেকে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ আইন মেনেই ইউক্রেনের তিনটি নৌজাহাজ আটক করেছে বলে দাবি করেছে রাশিয়া। রুশ প্রেসিডেন্টের বাসভবন ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, ইউক্রেনের নৌবাহিনীর জাহাজগুলো ‘রাশিয়ার পানিসীমায় আগ্রাসন চালিয়েছিল। তাই তারা রুশ ফেডারেশনের পানিসীমায় বিদেশি সামরিক জাহাজের অনুপ্রবেশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র আরও বলেন, রাশিয়ার সীমান্তরক্ষী বাহিনী কঠোরভাবে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ আইন অনুসরণ করেছে। রাশিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীর সতর্কবার্তা উপেক্ষা করে ইউক্রেনের জাহাজগুলো অবৈধভাবে রাশিয়ার পানিসীমায় অনুপ্রবেশ করার পর এগুলোকে আটক করা হয়। রাশিয়ার পানিসীমা লঙ্ঘনের দায়ে ইউক্রেনের জাহাজগুলোর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রুজু করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। তবে কোথায় কীভাবে মামলা হয়েছে সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু তিনি জানাননি।

এর আগে সোমবার ক্রিমিয়া উপদ্বীপে ইউক্রেনের নৌবাহিনীর তিনটি জাহাজ জব্দ করে রাশিয়া। এ ঘটনায় ইউক্রেনের ছয় কর্মকর্তা ও নাবিক আহত হয় বলে দাবি করেছে কিয়েভ। ফলে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে। জাহাজ আটকের ঘটনায় দুটি দেশই একে-অন্যকে পাল্টাপাল্টি দোষারোপ করেছে। দুই দেশের মধ্যে বিগত কয়েক মাস ধরেই উত্তেজনা ক্রমশ বাড়ছিল। বিশেষ করে কৃষ্ণ সাগরে এবং ক্রিমিয়ান উপকূলে আজোভ সাগরে।