পিতা-পুত্রের গোলযোগ মিমাংসা করতে গিয়ে আওয়ামীলীগ নেতা গুরুতর জখম


485 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পিতা-পুত্রের গোলযোগ মিমাংসা করতে গিয়ে আওয়ামীলীগ নেতা গুরুতর জখম
মার্চ ২, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

এম. আর মিঠু ::

সাতক্ষীরায় বাবা ও ছেলের ঝগড়া মিমাংশ করতে গিয়ে ছেলের কুড়ালের কোপে গুরুতর জখম হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ অজিয়ার রহমান (৫২)। বৃহস্পতিবার সকালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়নের কালেরডাঙ্গা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অবস্থার আরো অবনতি ঘটলে তাকে সন্ধ্যায় ঢাকায় নিয়ে রওনা হয়েছে। গ্রামবাসীর সহায়তায় পুলিশ হত্যা প্রচেষ্টাকারি ফজলুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে।

আহত সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ অজিয়ার রহমান সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়নের কালেরডাঙ্গা গ্রামের মৃত আহম্মদ আলী সরদারের ছেলে ও ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। গ্রেফতারকৃত ফজলুর রহমান (৩০) একই গ্রামের রফেজউদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়নের কালেরডাঙ্গা গ্রামের রফেজউদ্দিন বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ীর পথের একটি চটকা গাছ কাটার জন্য প্রস্তুুতি নেয়। এ সময় ছেলে ফজলুর রহমান মারপিট করে তার কাছ থেকে কুড়াল কেড়ে নিলে সে দৌড় দেয়।

পরে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য ও আ’লীগ নেতা অজিয়ার রহমানকে রফেজদ্দিন মিমাংসার জন্য ডেকে নিয়ে বাড়িতে গেলে পুনরায় তাকে কুড়াল দিয়ে মারতে গেলে তাকে শান্ত করার চেষ্টা করে।

এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে হঠাৎ করে কুড়াল দিয়ে স্বজোরে অজিয়ার রহমানের মাথার পেছনে কোপ দেয়। এতে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল ভর্তি করা হয়।

অবস্থার ক্রমাবনতি হতে থাকেলে দুপুরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অবস্থার আরো অবনতি ঘটলে তাকে ঢাকায় নিয়ে রওনা হয়েছে। তার অবস্থা খুবই আশংকাজনক।

এদিকে গ্রামবাসী আ’লীগ নেতার হত্যা প্রচেষ্টাকারি ফজলুর রহমানকে ঘরের মধ্যে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্যা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার সাথে জড়িত ফজলুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মেম্বরের ভাইপো রবিউল ইসলাম খোকন বাদী হয়ে চারজনকে আসামী করে থানায় একটি এজাহার দিয়েছে।
##