পুরাতন সাতক্ষীরায় জমি জবর-দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন


357 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পুরাতন সাতক্ষীরায় জমি জবর-দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
এপ্রিল ২৮, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
পুরাতন সাতক্ষীরার নাথপাড়া এলাকার সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে এক মহিলার জমি জবরদখলের অভিযোগে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে একই এলাকার নিলুফার ইয়াসমিন লিলি এই সংবাদ সম্মেলন করেন। এ সময় লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জজের ড্রাইভার সিরাজুল ইসলাম পৌর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের নামে জমি দখলের যে অভিযোগ করেছেন তা মিথ্যা ও বানোয়াট। সিরাজুল ইসলাম রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের নামে মিথ্যাচার করে আমাদের জমি আত্মসাতের ঘৃণ্য পায়তারা চালাচ্ছে। আমাদের জমির মধ্যে সিরাজুল ইসলামের কোন জমি নেই।
প্রকৃত তথ্য হলো- বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর আমার নানা নওশের আলী মোছাম্মৎ অভিরণ, নূর ইসলাম সরদার ও নুরুজ্জামনের কাছ থেকে সাড়ে ২২ শতক জমি কোবলা রেজিস্ট্রি করে দখলিকার থাকাকালীন ২০০৯ সালে আমার নামে সাড়ে ১২ শতক ও আমার বোনের নামে ১০ শতক জমি হেবানামা করে দেন। বর্তমানে আমরা হালনাগাদ খাজনা পরিশোধ করে গাছ-গাছালি লাগিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখল করছি। কিন্তু প্রতিবেশী সিরাজুল ইসলাম ২০০৯ সালে ওই জমি দখলের জন্য আমাদের উপর হামলা করে। ওই ঘটনায় আমরা মামলা দায়ের করি, যা বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে। এরপরও সিরাজুল ইসলাম জমি জবরদখলের ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। এর প্রেক্ষিতে আমরা ১৪৫ ধারা মোতাবেক দুটি মামলা করি, ২টিই রায় আমাদের পক্ষে এসেছে। গত ২৭/১/১৬ তারিখে আমরা আমাদের জমিতে প্রাচীর নির্মাণ করলে সিরাজুল ইসলাম ১৫/২০ গু-া নিয়ে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আমাদের সীমানা প্রাচীর ভেঙে ফেলে জমি দখলের চেষ্টা করে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি সিরাজুল ইসলামের ষড়যন্ত্র থেকে মুক্তি পেতে পুলিশ সুপারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। ##