প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ


396 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ
এপ্রিল ১, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

সাতÿীরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক দÿিণে মশাল, দৈনিক আজকের সাতÿীরা ও দৈনিক পত্রদূত পত্রিকায় “লাবসায় জমিদারদের দান করা মসজিদের সম্পত্তি দখল করার পায়তারা” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। উক্ত সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যে প্রণোদিত।

প্রকৃতপÿে মৃত জমিদার মুন্সি ইমাদুল হকের রেখে যাওয়া মসিজদ, মাদ্রাসা, হাইস্কুল, প্রাইমারি স্কুল, পোস্ট অফিস, পুকুর, খেলার মাঠ ও চিকিৎসালয় রয়েছে। কিন্তু স্থানীয় একটি মহল ওই পুরার্কীতি মসজিদটি ভেঙে ফেলে জমিদারের স্মৃতি মুছে ফেলতে চায়।

এঘটনায় আমি ওই পুরাকৃর্তি নষ্ট না করার জন্য মাহমান্য হাইকোর্টে একটি রিটপিটিশন দায়ের করি।

যার নং- ১০৪৭২/২০১১। আদালত উক্ত মসজিদটি না ভাঙার জন্য জেলা প্রশাসক সাতÿীরা, ওসি সাতÿীরাকে ৪৮ ঘন্টার ভিতরে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন এবং আগামী ২সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

এছাড়া কুচক্রী মহলটি প্রতœতত্ত¡ দপ্তরের অধিগ্রহণকৃত জমির মধ্যে থেকে ঈদগাহ ভেঙে নতুন নির্মাণ ও পাচিল ভেঙে আব্দুল হাকিম বালু রাখে। মৃত জমিদার মুন্সি ইমাদুল হক আমার পূর্ব পুরুষ। যে কারণে উক্ত মসজিদটি না ভাঙ্গার জন্য বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করি।

এতে ÿিপ্ত হয়ে ইমামুল হোসেন কালু, শেখ আব্দুর হাকিম, কাজী আক্তারুল ইসলামসহ তার সাঙ্গপাঙ্গরা আমার ও আমার পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে।

এছাড়া তারা আমার বাড়িটি সম্পর্কে যে অভিযোগ করেছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। ওই বাড়ির যাবতীয় বৈধ কাগজপত্র আমার রয়েছে। তাছাড়া আমি (মাহমুদা খাতুন) স্বীকৃতি কলেজ থেকে পাশ করা চিকিৎসক।

ওই চক্রটি সাংবাদিকদের মিথ্যা তথ্যা দিয়ে উক্ত সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে। আমি উক্ত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সাথে সাথে প্রতœতত্ত¡ অধিদপ্তরের অধিগ্রহণকৃত মসজিদ রÿার জন্য সংশিøষ্ট কর্তৃপÿে হ¯Íÿেপ কামনা করছি।

আমির হায়দার ওয়াকর্ফ স্টেটের পÿে ,মুতয়ালিø মাহমুদা খাতুন

##