প্রতিটি কাজেই সততা ও দায়বদ্ধতা থাকা জরুরি : চঞ্চল চৌধুরী


152 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
প্রতিটি কাজেই সততা ও দায়বদ্ধতা থাকা জরুরি : চঞ্চল চৌধুরী
জানুয়ারি ৩০, ২০১৯ ফটো গ্যালারি বিনোদন
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

চঞ্চল চৌধুরী। অভিনেতা ও মডেল। আরটিভিতে প্রচার শুরু হয়েছে তার অভিনীত নতুন ধারাবাহিক নাটক ‘ডি-টোয়েন্টি’। নাটক ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে-

‘ডি -টোয়েন্টি’ নাটকে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন ছিল?

বৃন্দাবন দাসের গল্পে আলাদা ধরন আছে। সুস্থ বিনোদনের জন্য তার স্ট্ক্রিপ্টের কোনো জুড়ি নেই। আমাদের শেকড় নিয়েই নাটকের গল্প। ভেতরের অনেক হাসি-ঠাট্টা তামাসা সুন্দরভাবে তুলে এনেছেন রচয়িতা। বৃন্দাবন দাসের রচনায় গ্রামীণ পটভূমির নাটকেরই বেশি কাজ করা হয়েছে। এবার শহুরে গল্পের এই নাটকের কাজ করলাম। স্বল্প আয়ের মানুষ শত কষ্টের মাঝেও কীভাবে জীবনযাপন করে তা নির্দেশক সাগর জাহান সুনিপুণভাবে তুলে ধরেছেন। তার পরিচালনায় এটি আমার প্রথম কাজ ছিল। সব মিলিয়ে এতে কাজ করে ভালো লেগেছে।

সাম্প্রতিক সময়ে ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের ১০০তম দিন পূর্ণ করা একটি বড় অর্জনই বটে। বিষয়টিকে আপনি কীভাবে দেখছেন?

সত্যিই তাই। এ ক্ষেত্রে আরেকবার প্রমাণিত হলো, ছবির নির্মাণশৈলী ও দর্শকের মেলবন্ধন যদি সুদৃঢ় হয়, একটি চলচ্চিত্রের সাফল্য আসবেই। সরকারি অনুদানে নির্মিত কোনো চলচ্চিত্র এর আগে বছরের সেরা ব্যবসাসফল ও জনপ্রিয় হয়েছে কিংবা দেশের বাইরে রেকর্ড পরিমাণ ব্যবসা করেছে অথবা শততম দিন পূর্ণ করেছে- এমনটি শোনা যায়নি। ছবির সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িয়ে থাকা প্রতিটি মানুষই এই সাফল্যের দাবিদার। এই অর্জন চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রির প্রতিটি মানুষের। আগামীতে সবাই যেন দেবীর মতো ভালো গল্প নিয়ে এগিয়ে আসেন। প্রতিটি কাজেই সততা ও দায়বদ্ধতা থাকা জরুরি। এই দুটি জিনিস যদি সবার মধ্যে থাকে তাহলে আমাদের সিনেমা বিশ্ব চলচ্চিত্র অঙ্গনেও কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখবে।

টিভি মিডিয়ার অনেকেই এখন অনলাইন মাধ্যমেও অভিনয় করছেন। এ প্রবণতা আপনার কাছে কতটা ইতিবাচক মনে হয়?

সময়ের চাহিদার সঙ্গে একসময় সবকিছুর পরিবর্তন হয়। বলা যেতে পারে, সময়ে সব বদলায়। সেই ধারাবাহিকতায় অনলাইনে প্রচুর কাজ হচ্ছে। তবে কাজের মান ঠিক রাখা জরুরি। আমাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য যেন অনলাইনে বজায় থাকে। নিজস্ব সংস্কৃতিকে যেন না হারাই।

মঞ্চ নিয়ে কোনো পরিকল্পনা আছে?

মঞ্চে অভিনয় সবসময় উপভোগ করি। গত দুই বছর অনিয়মিত হয়ে পড়েছি। সময় ও ব্যস্ততার কারণে মঞ্চে অভিনয় করা হয় না। তবে বর্তমানে আমাদের ‘আরণ্যক নাট্যদল’ বেশকিছু নতুন নাটক নিয়ে এসেছে। নতুন প্রযোজনাতে কাজ করা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। আগের প্রযোজনাগুলোতে অভিনয় করছি।