প্রতিটি মহাসড়ক এখন চলার উপযুক্ত : কাদের


304 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
প্রতিটি মহাসড়ক এখন চলার উপযুক্ত : কাদের
সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
দেশের প্রতিটি মহাসড়ক এখন চলার উপযুক্ত রয়েছে বলে দাবি করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ শুক্রবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়ক প্রশস্তকরণ কাজ (চার লেনে রূপান্তর) ও মহাসড়কে ডিভাইডারের উদ্বোধনকালে এ দাবি করেন তিনি।
সেতুমন্ত্রী বলেন, আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে দেশের সড়কগুলোতে যানজট হবে না। দেশের প্রতিটি মহাসড়ক এখন চলাচলের উপযোগী করা হয়েছে। তবে গত কিছুদিনের টানা বৃষ্টির কারণে সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কিছু ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক মেরামত করা হয়েছে ও মেরামতের কাজ চলছে।
মন্ত্রী আরও বলেন, শুধু বৃষ্টিতেই সড়ক নষ্ট হয় না। কাজের মান খারাপ হলে বৃষ্টিতে সড়কের বেশি ক্ষতি হয়। যেখানে বৃষ্টিতে সড়ক বেশি নষ্ট হয়েছে তা তদন্ত করে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
বাস-ট্রেনের টিকিট প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশের বাস, ট্রেনসহ কোথাও ভিআইপিদের জন্য আলাদা ব্যবস্থার প্রয়োজন নেই। পার্শ্ববর্তী ভারতসহ সার্কভুক্ত কোনো দেশে ভিআইপিদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা নেই। ভিআইপিদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থার কারণে সাধারণ মানুষকে ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয়। সাধারণ মানুষের সঙ্গে তারাও সংশ্লিষ্ট বিভাগের টিকিট সংগ্রহ করবেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের কোনো মহাসড়কে ফিটনেসবিহীন যানবাহন চলাচল করতে পারবে না। তিনি সড়ক মহাসড়কে ফিটনেসবিহীন গাড়ি উঠলেই পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাদের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আহ্বান জানান।
সেতুমন্ত্রী আজ সয়দাবাদ থেকে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ সড়কের নলকা পর্যন্ত ৪টি পয়েন্টে সড়ক প্রশস্তকরণ কাজ ও নির্মিত ডিভাইডার পরিদর্শন করেন। মন্ত্রীর সঙ্গে সেতু বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী কামারুজ্জামান, সড়ক ও জনপথ বিভাগের ময়মনসিংহ অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী শাহবুদ্দিন, সিরাজগঞ্জের জেলা প্রশাসক বিল্লাল হোসেন, জেলা পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া, কে এম হোসেন আলীসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ঈদকে সামনে রেখে গাজীপুর উপজেলার চন্দ্রা মোড় থেকে সিরাজগঞ্জ পর্যন্ত মহাসড়কটি বিশেষ নজরদারিতে রাখা হয়েছে। এ ছাড়াও ঢাকার সায়েদাবাদ ও আবদুল্লাহপুর মোড়ে বর্তমানে বেশি যানজট হচ্ছে। এই দুটি পয়েন্টে যানজট এড়াতে পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাদের নিয়ে দ্রুত সমাধান করা হবে।