প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন খালেদা জিয়া : আদালতের পর্যবেক্ষণ


292 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন খালেদা জিয়া : আদালতের পর্যবেক্ষণ
অক্টোবর ২৯, ২০১৮ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ সব আসামির ৭ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের জেল দেয়া হয়ে।

রায় ঘোষণার পর দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল সাংবাদিকদের জানান, আদালত রায়ে মোট ১৫টি পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন। তার একটি হল প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন খালেদা জিয়া। তিনি ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় এ তহবিল গঠন হলেও তিনি নিজের প্রধানমন্ত্রী পরিচয় গোপন করে এ অপরাধে নিজেকে যুক্ত করেছেন।

দুদকের আইনজীবী আরও বলেন, এ ট্রাস্টে খালেদা জিয়া ব্যক্তিগত কোনো টাকা রাখেননি। কিন্তু তহবিলের টাকা তিনি আত্মসাৎ বা ভোগদখল করেছেন।

সেই সঙ্গে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে কাকরাইলে থাকা জমি রাষ্ট্রের অনুকুলে বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আদালত আরও জানিয়েছেন, ক্ষমতায় যারা আছেন বা ছিলেন তাদের জন্য এ রায় এক ধরনের হুশিয়ারি।