প্রবীনদের প্রতি দৃষ্টি দেওয়ার সময় হয়েছে : সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক


86 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
প্রবীনদের প্রতি দৃষ্টি দেওয়ার সময় হয়েছে : সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক
অক্টোবর ১, ২০১৯ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল আলম মুন্না :
আপনাদের বেশি দুর্বল হয়ে পড়ার কারন নেই। বর্তমানে দেশে সামাজিক অস্থিরতার কিছু কারনেই অনেক বড় বড় পরিবার ভেঙ্গে ছোট পরিবারে পরিনত হয়েছে। যারফলে অনেক প্রবীণ ব্যক্তিরা অসহায় হয়ে পড়ে। তবুও বাংলাদেশে অনেক বড় বড় পরিবার আছে যারা এখনও এক সাথে রয়েছে এবং একই হাড়িতে রান্না করে খাওয়া-দাওয়া করে। এছাড়া বাংলাদেশে কিন্তু এখনও অনেক সন্তানরা রয়েছে যারা বৃদ্ধ বয়সে পিতা-মাতার পাশে দাড়ায় এবং সেবা-শ্রুষা দিয়ে থাকেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বৃতি দিয়ে বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জনগণের সরকার তিনি সারা দেশের সকল জনগণের পাশাপাশি তিনি বয়স্ক বা প্রবীণদের নিয়েও ভাবেন। যার ফলে তিনি দেশে বয়স্কভাতা ও চিকিৎসা ভাতা চালু করেছেন। সাতক্ষীরায় প্রবীণদের একটা নির্ধারিত বসার যায়গার দাবিতে তিনি বলেন আপনারা আপাতত সপ্তাহে একদিন জেলা অফিসার্স ক্লাব ব্যবহার করবেন যতদিন নির্ধারিত যায়গা না পাওয়া যায়। পাশাপাশি আপনারা যায়গা দেখিয়ে দিলে আমি আপনাদের জন্য বসার ব্যবস্থা করবো। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন বার্ধক্য কিন্তু বয়সে না সেটা ভর করে মনে। নিজেদের প্রবীণ বা দুর্বল ভাবার দরকার নাই। সরকার আপনাদের পাশে রয়েছে। পিতা-মাতার ভরণ-পোষনের দায়িত্ব নিতে আইন করেছে সরকার চিকিৎসা সেবা আমাদের সবার দোরগোড়ায়। যেসব সন্তানরা যারা এটা মানতে অনিহা প্রকাশ করবে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। প্রবীণদের নিজেকে অসহায় ভাবা সঠিক হবেনা। আপনাদের সন্তানদের নিয়ে বেশি ভাবার প্রয়োজন নাই আপনাদের মূল ভাবনা হওয়া উচিৎ সন্তানকে কিভাবে সুসন্তান ও সম্পদ হিসাবে গড়ে তোলা যায়, সেদিকে নজর বাড়াবেন তাহলেই জীবনে অনেক চ্যালেঞ্জ কমে আসবে। আপনাদের জন্য সরকারের অনেক পরিকল্পনা রয়েছে। তিনি প্রবীণদের উদ্দেশ্যে প্রতিদিন ডায়রী ব্যবহারের উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন আপনারা দৈনন্দিন কাজকর্ম গুলো সেখানে লিপিবদ্ধ করবেন। আপনাদের অসহায় ভাবার কোন সুযোগ নেই। পুলিশ প্রশাসন আপনাদের সকল ইতিবাচক সহযোগীতার জন্য সবসময় পাশে থাকবে।

“বয়সের সমতার পথে যাত্রা” এই প্রতিপাদ্যকে ধারন করে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস ২০১৯ উপলক্ষ্যে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক কার্যালয় হতে এক বর্নাঢ্য র‌্যালী বের হয়ে জজকোর্ট চত্তর প্রদক্ষিন করে আবারও জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। সাতক্ষীরা জেলা প্রবীণ হিতৈষী সংঘের আয়োজনে এবং সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহযোগীতায় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯ টায় র‌্যালী পরবর্তীতে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন জেলা প্রশাসক এস,এম, মোস্তফা কামাল এবং বিশেষ অতিথি সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার (বিপিএম বার) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান। জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক দেবাশিষ সরদারের সভাপতিত্বে এবং প্রবীণ হিতৈষী সংঘের নেতা অধ্যাপক মোজাম্মেল হোসেনের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন প্রবীণ হিতৈষী সংঘের সাধারন সম্পাদক জিয়া উদ্দীন আহমেদ ও সাতক্ষীরা সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শেখ আব্দুল ওয়াদুদ। সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলা আ.লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, জেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ নজরুল ইসলাম, সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আছাদুজ্জামান বাবু ও ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনূর ইসলাম। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন বয়স্ক ব্যক্তিরা। আলোচনা সভা শেষে মমতাময়ী মোসলেমা খাতুন, মমতাময় আবুল হোসেন এবং প্রবীণ হিতৈষী শেখ আব্দুল ওয়াদুদকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন অতিথিবৃন্দ।