প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজেকে স্বাবলম্বী হতে হবে : দেবহাটায় জেলা প্রশাসক


390 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজেকে স্বাবলম্বী হতে হবে : দেবহাটায় জেলা প্রশাসক
সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৫ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আর.কে.বাপ্পা, দেবহাটা :
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান বলেছেন, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজেকে স্বাবলম্বী হতে হবে। একই সাথে প্রশিক্ষণের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে  দেশের উন্নয়ন করতে হবে। যেকোন কাজে প্রশিক্ষণের কোন বিকল্প নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রতিটি কাজে যদি প্রশিক্ষন না থাকে তাহলে সেই কাজটি যথাপযুক্তভাবে করা সম্ভব হয়না। তিনি আইটি সেক্টরের কথা উল্লেখ করে যুবকদেরকে প্রশিক্ষনের মাধ্যমে দেশকে উন্নয়নের দিকে নিয়ে যাওয়ায় আহবান জানান।
তিনি সোমবার সকাল সাড়ে ১০ টায় দেবহাটা উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের আয়োজনে এবং বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা আশার আলোর সহযোগীতায় সখিপুর কেবিএ কলেজ মিলনায়তনে বেকারমুক্ত গ্রাম গঠনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
কর্মসংস্থান ও আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে উপজেলা পর্যায়ে প্রশিক্ষণ কার্য্যক্রম জোরদারকরন প্রকল্পের আওতায় ১৪ দিন মেয়াদী ৪০ জন মহিলাকে পোশাক তৈরী প্রশিক্ষন দেয়া হবে। প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাতক্ষীরা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুল কাদের সভাপতিত্ব করেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ্ব আব্দুল গনি, কেবিএ কলেজের অধ্যক্ষ রিয়াজুল ইসলা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব আলম খোকন ও উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা পারভিন।
উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা সঞ্জীব কুমার দাশের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আশার আলোর নির্বাহী পরিচালক ও জাতীয় যুব পুরষ্কারপ্রাপ্ত আবু আব্দুল্লাহ আল আজাদ, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব আর.কে.বাপ্পা, যুব উন্নয়নের ক্রেডিট সুপারভাইজার নির্মল কুমার মন্ডল, আশার আলোর সমন্বয়কারী ফজলুল হক প্রমুখ।
উল্লেখ্য, দেবহাটা উপজেলার সখিপুর ইউনিয়নের মাঝ সখিপুর গ্রামে ২ হাজার ৮৭৮ জন জনসংখ্যার মধ্যে বেকার জনসংখ্যা আছে ৫৯১ জন। উক্ত প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে উক্ত গ্রামকে বেকারমুক্ত করার লক্ষ্যে আশার আলো কাজ করছে।