প্রয়োজনে ট্রাইব্যুনাল আরও বাড়বে


326 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
প্রয়োজনে ট্রাইব্যুনাল আরও বাড়বে
সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
ঢাকা: মামলার সংখ্যা বাড়লে নিষ্ক্রিয় রাখা আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ আবারও সক্রিয় এবং প্রয়োজনে ট্রাইব্যুনালের সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

কাজের পরিধি কমে যাওয়ার কারণেই একটি ট্রাইব্যুনাল নিষ্ক্রিয় রাখা হয়েছে বলেও জানান আইনমন্ত্রী।

আইনমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে যে মামলাগুলোর বিচারিক কার্যক্রম চলমান রয়েছে, তাতে একটি ট্রাইব্যুনাল দিয়েই বিচার কাজ পরিচালনা করা সম্ভব। আবার যদি প্রয়োজন মনে হয়, তাহলে ট্রাইব্যুনালের সংখ্যা দুই থেকে তিনটি পর্যন্ত বাড়ানো হবে।

আনিসুল হক আরও বলেন, একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলাগুলো যতোক্ষণ আছে, ততক্ষণ বিচার কাজ চলবে।

গত মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দু’টির মধ্যে একটিকে নিষ্ক্রিয় করে একাত্তরে সংঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করে আইন মন্ত্রণালয়।

আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মোহাম্মদ জহিরুল হক স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনে ট্রাইব্যুনাল-২ নিষ্ক্রিয় এবং ট্রাইব্যুনাল-১ সক্রিয় রেখে পুনর্গঠন করা হয়। একইসঙ্গে দুই ট্রাইব্যুনাল একীভূত হয়ে পুনর্গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল হিসেবে কাজ করবে বলে জানানো হয় প্রজ্ঞাপনে।

তবে, অপর ট্রাইব্যুনালটি পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত অগঠিত অবস্থায় থাকবে বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়।

তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল-১ পুনর্গঠন করা হয় বিচারপতি মোহাম্মদ আনোয়ার উল হককে চেয়ারম্যান করে। পুনর্গঠিত এ ট্রাইব্যুনালের সদস্য করা হয়েছে ট্রাইব্যুনাল-২ এ কর্মরত সদস্য বিচারপতি শাহিনুর ইসলাম ও সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি মোহাম্মদ সোহরাওয়ার্দীকে।

প্রজ্ঞাপনে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ ও ২ এর বিচারাধীন মামলার সংখ্যা বিবেচনায় ট্রাইব্যুনাল দু’টিকে একীভূত করে একটি ট্রাইব্যুনাল গঠনের সিদ্ধান্তের কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়। পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ ও ২ এর প্রশাসনিক ও বিচার সংক্রান্ত সকল বিষয়াদি পুনর্গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক সম্পন্ন হবে বলেও জানানো হয়।

এ পুনর্গঠনের ফলে ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও সদস্য বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন এবং ট্রাইব্যুনাল-২ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও সদস্য বিচারপতি মুজিবুর রহমান মিয়া সুপ্রিম কোর্টে ফিরে গেছেন।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) থেকে বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনাও শুরু করেছেন পুনর্গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।