ফাইনালে যে কারণে হেরে গেল খুলনা


93 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ফাইনালে যে কারণে হেরে গেল খুলনা
জানুয়ারি ১৮, ২০২০ খেলা
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

প্রথমবারের মতো বিপিএল ফাইনাল খেলেন মুশফিকুর রহিম। এর আগের ছয় আসরে তিনবার উঠেছিলেন সেরা চারে। একবারও যেতে পারেননি ফাইনালে। তিনবার বিদায় নিয়েছিলেন লিগ পর্বে। এবার ফাইনালে উঠলেও শিরোপা ভাগ্য খুলেনি তার।

শুক্রবার মিরপুরে রাজশাহী রয়্যালসের কাছে ২১ রানে হেরে মুশফিকের দল খুলনা টাইগার্স হয়েছে রানার্সআপ। আগে ব্যাটিং করে রাজশাহী ৪ উইকেটে ১৭০ রান তোলে। জবাবে মুশফিকের দল ১৪৯ রানের বেশি করতে পারেনি।
ফাইনাল হারে হতাশা ঝরল মুশফিকের কন্ঠে,‘হতাশ তো অবশ্যই। ফাইনালে উঠলে সবাই তো আশা করে চ্যাম্পিয়ন হতে, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু প্রত্যাশা অনুযায়ী সব সময় পারফর্ম করা যায় না। সত্যি কথা বলতে আমরা আসলে তিনটা বিভাগেই খুব একটা বেশি ভালো খেলিনি। কোনোবারই তো ফাইনাল খেলতে পারিনি। এবার পেরেছি। পরের আসরে চ্যাম্পিয়ন হবো ইনশাআল্লাহ।’

কোথায় হারল খুলনা? সেই ব্যাখ্যাও দিয়েছেন অধিনায়ক।

‘বোলিংয়ের শুরুটা ভালো হয়েছে। ১৬ ওভার পর্যন্ত ভালোই বল করছিলাম। যতই ওরা বিধ্বংসী ব্যাটিং করুক আমরা চেষ্টা করছিলাম ওদেরকে অল্পরানে আটকে রাখতে। একটা সময় মনে হচ্ছিল ১৫০ হলেও হতে পারে। রাসেলের ক্যাচটা হয়ে গেলে অন্য রকম পরিস্থিতি হতে পারত। ওদের তাহলে একজন বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান থাকত। একজনের জন্য তখন কাজটা কঠিন হয়ে যেত। ফাইনালে ১৭০ রান, ১০-১৫ রান একটু বেশি ছিল। কারণ ফাইনালে একটা আলাদা চাপ থাকে। একটু হতাশার কারণ পুরো টুর্নামেন্টে আমাদের বোলাররা খুবই ভালো করেছে। ’

নিজেদের ব্যাটিং নিয়ে মুশফিকের ব্যাখ্যা,‘ব্যাটিংয়ে শুরুটা ভালো হয়নি। তবে রাইলি ও শামসুর যেভাবে ব্যাট করছিল মনে হচ্ছিল হয়ে যাবে। রাইলি পুরো টুর্নামেন্টে আমাদের হয়ে অবদান রেখেছে। মনে হচ্ছিল এবারও পারবে। কিন্তু ওর আউটটা ভুল সময়ে হয়েছে। আবার রাব্বীর ওই ওভাররা আমাদের ছন্দ নষ্ট করেছে। শামসুর আউট হওয়ার পর নাজিবুল্লাহও শুরু করেছিল। কিন্তু সেও আউট হয়ে গিয়েছে। আমার মনে হয় সেট ব্যাটসম্যানের জন্য এখানে রান করা সহজ ছিল।’

শেষ হাসি হাসতে পারেননি মুশফিক। তবে গোটা টুর্নামেন্টে মুশফিকের দল ছিল অনবদ্য। রানার্সআপ হয়েও খুলনা পেয়েছে দারুণ সম্মান।