ফের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার শঙ্কায় পাকিস্তান


165 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ফের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার শঙ্কায় পাকিস্তান
সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

আচমকা সফর বাতিলের একদিন পর শনিবার পাকিস্তান ত্যাগ করেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল। একটি চার্টার্ড ফ্লাইটে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় দুবাইয়ের উদ্দেশে ইসলামাবাদ ছাড়ে তারা। কিউইদের পাকিস্তান ছেড়ে যাওয়ার ঘটনাটি সম্ভবত বিচ্ছিন্ন ঘটনায় সীমাবদ্ধ থাকছে না।

ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) পক্ষ থেকে অক্টোবরে ইংল্যান্ড দলের পাকিস্তান সফর স্থগিতের ঘোষণা আসতে পারে আজ। এ ছাড়া সূচিতে থাকা ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারির সফর নিয়ে নতুন করে ভাবার কথা বলছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। আর দ্বিপক্ষীয় এই সিরিজগুলোর ওপর নির্ভর করছে পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট আয়োজনের সম্ভাবনাও।

২০২৪-৩১ চক্রে বিশ্বকাপ ও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিসহ ছয়টি টুর্নামেন্টের জন্য ‘বিড’ করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। সদস্য দেশগুলোর আপত্তি থাকলে আটকে যাবে টুর্নামেন্ট আয়োজকের স্বত্ব পাওয়া। সব মিলিয়ে আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার শঙ্কায় এখন পাকিস্তান।

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর হামলার পরের ছয় বছর কোন ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন করতে পারেনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। ২০১৫ সালে জিম্বাবুয়ে দিয়ে ‘নির্বাসন-পর্ব’ সমাপ্তির পর গত কয়েক বছরে আবারও পাকিস্তান সফর করতে শুরু করেছে বিভিন্ন দেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের পর চলতি বছর দক্ষিণ আফ্রিকাও দেশটিতে খেলতে গেছে। এ বছরই নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ড এবং আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ার সফর সূচিও চূড়ান্ত হয়ে ছিল।

চলতি মাসে বাংলাদেশ সফরে এসে পাঁচটি টি২০ শেষে গত সপ্তাহে ঢাকা থেকে পাকিস্তানে যায় কিউইরা। শুক্রবার রাওয়ালপিন্ডিতে সফরের প্রথম ওয়ানডে শুরুর আগমুহূর্তে নিরাপত্তার শঙ্কার কারণ দেখিয়ে সফর বাতিল করে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (এনজেডসি)। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডেনের সঙ্গে কথা বললেও সমাধান মেলেনি।

পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ জানান, নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে বলেছেন- কোনো হুমকি নেই, তবে ক্রিকেট দলের ওপর হামলার শঙ্কা আছে।

রশিদ দাবি করেন, ‘পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রে’র কারণে নিউজিল্যান্ড সফর বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

নিউজিল্যান্ড সফর বাতিলের সিদ্ধান্তে ব্রিটিশ হাইকমিশনের হাত আছে- টুইটে এমন একটি অভিযোগের জবাব দিয়েছেন পাকিস্তানে নিযুক্ত হাইকমিশনার ক্রিশ্চিয়ান টার্নার, ‘নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিলে ব্রিটিশ হাইকমিশনের জড়িত থাকার গুঞ্জন অসত্য। সিদ্ধান্তটি নিউজিল্যান্ড কর্তৃপক্ষের নিজস্ব এবং তারা এটি স্বাধীনভাবে নিয়েছে।’