বঙ্গবন্ধু ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক : ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক


1135 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বঙ্গবন্ধু ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক : ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক
আগস্ট ২২, ২০১৫ খুলনা বিভাগ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ওয়াহেদ-উজ-জামান, খুলনা :
বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর  প্রফেসর ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেছেন, বাঙালির মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাসে মাহপুরুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে বাংলাদেশের জন্ম হতো না। বঙ্গবন্ধু ছিলেন মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক। তিনি বাঙালি জাতিকে দিয়েগেছেন স্বাধীনতা। দিয়েছেন স্বাধীন-সার্বভৌম মানচিত্র আর শস্য- শ্যামল জমিনের উপর সূর্য লাল পতাকা।

তিনি বলেন, সমগ্রজাতির স্বপ্নকে বঙ্গবন্ধু নিজের স্বপ্ন হিসেবে ধারণ করেিেছলেন। প্রতিমুহূর্তে তিনি একটি স্বাধীন দেশের স্বপ্ন দেখতেন। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতির অহংকার। তিনি দীর্ঘ ২৩ বছর ধরে পাকিস্তানী শাসকদের বিরুদ্ধে বাঙালির গণতান্ত্রিক আন্দোলনে অগ্রদূতের ভূমিকা পালন করেন তিনি। অনন্যসাধারণ নেতৃত্বের মাধ্যমে সেই গণতান্ত্রিক আন্দেলনকে তিনি স্বাধীনতা আন্দোলনে রূপান্তর করেন। ১৯৭১ এ মুক্তিসংগ্রামের চূড়ান্ত পর্বে তাঁর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ মন্ত্রের মতো বাঙালি জাতিকে পাকিস্তানের সুশিক্ষিত সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে প্রায় খালি হাতে নামতে উদ্বুদ্ধ করেছিল। আবহমান শ্বাশত বাঙালির সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতক মুক্তির আকাক্সক্ষাকে তিনি বাস্তবায়িত করেছিলেন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে।

শনিবার সকাল ১০টায় খুলনা সরকারি মহিলা কলেজ অডিটোরিয়ামে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ খুলনা বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

পরিষদের জেলা সভাপতি অধ্যক্ষ মো. আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে অলোকিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি, খুলনা জেলা পরিষদ প্রশাসক ও আওয়ামীলীগ খুলনা জেলা সভাপতি শেখ হারুনুর রশীদ, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক হুইপ এসমএম মোস্তফা রশীদী সুজা এমপি, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান এমপি, অ্যাড শেখ মো. নূরুল হক এমপি, পঞ্চানন বিশ্বাস এমপি। মুখ্য আলোচক ছিলেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান। প্রধান বক্তা ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সিরাজুল হক আলো।

মূখ্যআলোচকের বক্তব্যকালে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বলেন, পাকিস্তানী শাসকগোষ্ঠির আতঙ্ক ছিলেন বঙ্গবন্ধু। জেল-জুলম, মাামলা ফাঁসির ভয় কোনো কিছুতে তাঁর মাথা নত হয়নি। বাংলার মানুষের মুক্তির দাবিতে, অধিকার আদায়ে, শোষণের বিরুদ্ধে তিনিই ছিলেন স্বোচ্চার প্রতিবাদী। তাঁর বজ্রবণ্ঠ পাকিস্তানের ভিত কাঁপিয়ে দিয়েছিল। দেশও মানুষেকে তিনি তাঁর আপনজন করে একজন দেশপ্রেমিক নেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে সমর্থ হন।

অন্যান্যের মধ্যে রাখেন পরিষদ নেতা  অধ্যক্ষ ড. আবুল কালাম আজাদ, জেলা সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. আবুল কালাম আজাদ, মহানগর সাধারণ সম্পাদক অধ্যপাক অজিত কুমার বিশ্বাস, অধ্যাপক সাকেরা বানু, উপাধ্যক্ষ মো. সদরুজ্জামান, শোভা রাণী হালদার, অধ্যপাক রফিকুল ইসলাম, অধ্যক্ষ এ এম আসাদুজ্জামান, অধ্যপাক দিপংকর হালদার, অধ্যাপক এস এম মিজানুর রহমান, অধ্যাপক সুবীর কুমার রায়, অধ্যাপক পারভীন সুলতানা, অধ্যাপ উল্লাসিনী সরকার, অধ্যাপক দিপংকর টিকাদার, অধ্যাপক এস এস আনিসুর রহমান, অধ্যাপক মো. নুরুল ইসলাম খান, অধ্যাপক শেখ অলিয়র রহমান, অধ্যাপহোসনেয়ারা চম্পা, অধ্যাপক সুশান্ত গোলদার প্রমুখ।