বছরে ছয় মাস পানিতে ডুবে থাকে দরগাহপুর কলেজের খেলার মাঠ


463 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বছরে ছয় মাস পানিতে ডুবে থাকে দরগাহপুর কলেজের খেলার মাঠ
অক্টোবর ১৮, ২০১৬ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

শেখ আসাদুজ্জামান(মুকুল) :
আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর এস.কে.আর.এইচ কলেজিয়েট বিদ্যালয়টি ১৯৬৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। যেখানে বর্তমানে ১৮০৫ জন ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। যেটি আশাশুনি তথা সাতক্ষীরার মধ্যে শিক্ষার্থীর সংখ্যার দিক দিয়ে শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর একটি এবং প্রতিটি পাবলিক পরীক্ষায় ফলাফলেও সকলের নকজর কাড়ে। এই প্রতিষ্ঠানে আছে একটি বড় খেলার মাঠ, যা দরগাহপুর কলেজের শিক্ষার্থী সহ দরগাহপুর গ্রামবাসীর খেলাধূলা ও বিনোদনের গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্র। কিন্তু অত্যান্ত দুঃখ ও পরিহাসের বিষয় যে, সেই মাঠের পানিতে এখন ঘুরে বেড়াচ্ছে বিভিন্ন প্রকার মাছ। উলেক্ষ্য যে কলেজের মাঠটি নিচু হওয়াই প্রতিবছর বর্ষাকালে পানিতে ডুবে যায়। অর্থাৎ মে থেকে অক্টোবর  পর্যন্ত এই ছয় মাস প্রতি বছর পানিতে ডোবানো থাকে। ফলে বন্ধ হয়ে যায় সকল প্রকার খেলাধুলা। এমনকি ক্লাস শুরু হওয়ার পূর্বে প্রতিদিন অ্যাসেম্বলি করার বাধ্যবাধকতা থাকলেও মাঠে পানি থাকার কারণে সেটা সম্পূর্ণ বন্ধ থাকে। ফলে খেলাধুলা করতে না পারায় ব্যাহত হচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীদের শারিরিক ও মানসিক বিকাশ। মাঠকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকবসীর মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া লক্ষ করা যায়। কয়েক জন অভিভাবাক আমাদের জানিয়েছে যে তাদের ছেলেমেয়েরা মাঠে খেলাধুলা না করতে পেরে মাদকসহ আরো অনেক বাজে অভ্যাসে ঝুকে পড়ছে। তারা এই সমস্যা দ্রুত সমাধান কামনা করেছেন। এ ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আমাদের জানান যে, গত কয়েক বছর ধরে এভাবে বর্ষাকালে কলেজ মাঠ পানিতে ডোবানো থাকে। খেলাধুলা ও অ্যাসেম্বলি করার ইচ্ছা থাকলেও মাঠে পানি থাকায় তা সম্ভব হয় না। তিনি বলেন যে, মাঠটিকে যদি মাটি দিয়ে ভরাট করা হয় তাহলে এই সমস্যার থেকে আমরা স্থায়ীভাবে মুক্তি পাব। তিনি এ জলবদ্ধতার সমস্যার স্থায়ী সমাধানের জন্য  মাননীয় জেলা প্রশাসক মহোদয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।