বদলে গেছে মাশরাফির দল, বদলাচ্ছে মুশফিকের দলও


295 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বদলে গেছে মাশরাফির দল, বদলাচ্ছে মুশফিকের দলও
অক্টোবর ২৫, ২০১৬ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল শাহাদাৎ (জাকির), ক্রীড়া প্রতিবেদক :
ওয়ানডেতে বাংলাদেশ যে বদলে গেছে,
সেটি নতুন করে বলার কিছু নেই। দেশের মাটিতে টানা ছয়টি সিরিজ জিতে উপমহাদেশের রেকর্ড ছুঁয়েছে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। সদ্যসমাপ্ত ইংল্যান্ড সিরিজে একটু এদিক-ওদিক হলেই রেকর্ডটা
সাত হয়ে যেত। টেস্ট সিরিজও শুরু হয়ে গেছে।
প্রথম টেস্টে একটুর জন্য জয় হাতছাড়া বাংলাদেশ। তাই কৌতূহলী ক্রিকেট প্রেমীদের মন জানতে চাইছে, ওয়ানডের বদলে যাওয়া রূপ কি টেস্টেও দেখাতে শুরু করল
বাংলাদেশ?
২০১৫ বিশ্বকাপের পর ওয়ানডেতে বাংলাদেশের সাফল্য রীতিমতো ঈর্ষণীয়। মোট ১৮টি ওয়ানডেতে ১৩টি জয়, ৫টি হার। জয়-পরাজয়ের
অনুপাত ২.৬। র্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ ৯ দলের
বিপক্ষেও বাংলাদেশে সাফল্য যথেষ্ট ভালো।
১২ ওয়ানডেতে ৮ জয়। জয় পরাজয়ের অনুপাত ২.০।
বিশ্বকাপের পর শীর্ষ ৯ দলের বিপক্ষে এমন সাফল্য নেই কোনো দলেরই। ইংল্যান্ডের এ অনুপাত ১.৭৩, দক্ষিণ আফ্রিকার সেটি ১.৬০। বিশ্ব
চ্যাম্পিয়ন ও র্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দল
অস্ট্রেলিয়ারও এ সময়ে জয়–পরাজয়ের অনুপাত মাত্র ১.২৩।
এ সময়ে এশিয়ার অন্য তিন শীর্ষ দল—ভারত,
পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার জয়ের চেয়ে হারের সংখ্যাটাই বেশি। বাংলাদেশের এমন বদলে যাওয়ার
পেছনের কারণটা বোঝা যায় দুটি পরিসংখ্যান দিয়ে।
বিশ্বকাপের পর ওয়ানডেতে বাংলাদেশের
ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং গড় ৩৯.২৭। ওভারপ্রতি রান নেওয়ার হার ৫.৭২। এ সময়ে বাংলাদেশের চেয়ে
এগিয়ে আছে শুধু ইংল্যান্ডই—৪০.২৭ গড় ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের। অথচ এর আগের দুই বছরে
বাংলাদেশের ব্যাটিং গড় ছিল ২৯–এর একটু বেশি,
ওভারপ্রতিও ৫ –এর একটু বেশি করেই রান নিতেন
ব্যাটসম্যানরা।
তবে বোলিংয়েই এসেছে সবচেয়ে
উল্লেখ্যযোগ্য পরিবর্তন। গত দেড় বছরে
বাংলাদেশের বোলারদের গড় ২৮.৫৪। ওভারপ্রতি
রান
দিয়েছেন তাঁরা ৫.০৮ করে। শীর্ষ নয় দলের
কেউই এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশের আশপাশে
নেই। সবচেয়ে কাছে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকার
বোলাররা প্রতিটি উইকেট পেতে ৩১.৫৩ রান
খরচ
করেছেন। ওভারপ্রতি তাঁরা দিয়েছেন ৫.৬১ রান।