বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে ২০টি লোকোমেটিভ দিচ্ছে ভারত : রেলমন্ত্রী


110 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে ২০টি লোকোমেটিভ দিচ্ছে ভারত : রেলমন্ত্রী
সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

আগামী অক্টোবর মাসে ভারত থেকে ২০টি লোকোমেটিভ আসার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। ভারত ও চীন সফর শেষে ফিরে মঙ্গলবার রেল ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে ভারতীয় রেল বিভাগ এ ইঞ্জিনগুলো দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, রেলে লোকোমোটিভ সঙ্কট রয়েছে। ভারতীয় ঋণে যেসব ইঞ্জিন আসার কথা, সেগুলো ২০২২ সাল নাগাদ পাওয়া যাবে। এর আগে রেলের ইঞ্জিন সঙ্কট কাটাতে আমরা তাদের কাছে ক্রয় বা ভাড়ায় কিছু ইঞ্জিন চেয়েছিলাম। কিন্তু তারা আমাদের ২০টি ইঞ্জিন বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে দিতে রাজি হয়েছে। এর ১০টা মিটার গেজ এবং ১০টা ব্রড গেজ।

অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের সময় লোকোমেটিভগুলোর হস্তান্তরের আশা করে মন্ত্রী জানান, বর্তমানে রেলওয়ের ২৩৩টি লোকোমোটিভ রয়েছে, তবে এর ৬৮ শতাংশের আয়ুষ্কাল ফুরিয়ে গেছে।

তিনি আরও জানান, ঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেসের চলাচল সপ্তাহে চার দিন থেকে বাড়িয়ে ছয় দিন করতে ভারতীয় রেলওয়েকে রাজি করিয়েছেন। এছাড়া খুলনা-কলকাতা রুটের বন্ধন এক্সপ্রেসের যাত্রা বাড়ানোর বিষয়েও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

চীন সফরের বিষয়ে সুজন বলেন, দেশটির রেল যোগাযোগ ব্যবস্থার বাস্তব অভিজ্ঞতা নিয়ে এসেছি, যা বাংলাদেশ রেলওয়ের উন্নয়নে কাজে দেবে।

২০২১ সালে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সময় রেল সংযোগ চালুর ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করে রেলপথ মন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত রেললাইনের কাজ ২০২৪ সালে শেষ হওয়ার কথা। তবে মাওয়া থেকে ভাঙ্গা অংশের কাজ ২০২১ সালের জুনের মধ্যে শেষ করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোফাজ্জেল হোসেন, রেলওয়ের মহাপরিচালক শামসুজ্জামানসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।