‘বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা কেউ ব্যাহত করতে পারবে না’


333 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
‘বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা কেউ ব্যাহত করতে পারবে না’
জানুয়ারি ২, ২০১৬ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহা বলেছেন, জ্ঞান, বিজ্ঞান, শিক্ষা, প্রযুক্তি ও অর্থনীতির ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ঈর্ষণীয় সাফল্যের দিকে ক্রমাগত এগিয়ে যাচ্ছে। এ যাত্রা কেউ পরাভূত করতে পারবে না। আমরা যে যেখানে থাকি না কেন সম্মিলিতভাবে বাংলাদেশের অর্থনীতি তথা সার্বিক উন্নয়নে নিরন্তর কাজ করে যাব।

তিনি আজ শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) মিলনায়তনে জগন্নাথ হল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে একথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, “আমার দৃঢ় বিশ্বাস ভাষাগত ও সাংস্কৃতিগত একক স্বত্ত্বা বিশিষ্ট যে বাঙালি জাতি ঐক্যবদ্ধ সংগ্রাম করে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব অর্জন করেছে, সে জাতির অগ্রযাত্রা কেউ ব্যাহত করতে পারবে না।”

তিনি বলেন, আমি এ ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসে দাঁড়িয়ে দু-একটি কথা বলতে চাই। সেটা হলো, আমাদের শিক্ষা-ব্যবস্থা, শিক্ষার মান। আমাদের এই যে দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ। সেখানে শিক্ষক-ছাত্র-কর্মচারী প্রত্যেকের সর্বত্র অবক্ষয় দেখা যাচ্ছে। আমরা এই রকম একটা প্রতিষ্ঠানকে কী রকমে রক্ষা করতে পারব?

তিনি আরও বলেন, “শিক্ষার ব্যাপারে আমাদের কি মান ছিল কি চিন্তা-চেতনা ছিল। আজকে আমরা কোথায় চলে যাচ্ছি। এখনও সোভিয়েত ইউনিয়নে ইউনিভার্সিটি অধ্যাপকদের সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হয়।”

আমরা শিক্ষাকে এখন ব্যবসায় পরিণত করেছি। এই প্রতিষ্ঠানটা একটা মহান বিদ্যাপীঠ। আমার মহান বিদ্যাপীঠের অনারেবল শিক্ষক যারা, এই শিক্ষকেরা এখন ক্লাস নেওয়ার চেয়ে আমরা প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির দিকে বেশি ঝুঁকে যাই। আমার এই কথা বলাতে অনেকে অখুশি হবেন। বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি হিসেবে আমি একটুও কুণ্ঠাবোধ করবো না। কারণ আমি যখন দেখি এ বিদ্যাপীঠ থেকে একজন ছেলে সর্বোচ্চ ডিগ্রি নিয়ে আইন পেশায় আসে, তখন তাকে একটার বেশি দুটি প্রশ্ন করলে তার মুখ থেকে কোনো উত্তর বাহির হয় না। খুবই কষ্ট লাগে, যোগ করেন প্রধান বিচারপতি।