বাংলাদেশে কোনোদিন দুর্ভিক্ষ হবে না : ড. আতিউর রহমান


118 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বাংলাদেশে কোনোদিন দুর্ভিক্ষ হবে না : ড. আতিউর রহমান
নভেম্বর ২৫, ২০২২ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

সাবেক গভর্নর অধ্যাপক ড. আতিউর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশে দুর্ভিক্ষ আর কোনোদিন হবে না। কারণ মানুষের এখনো পণ্য ক্রয়ের সক্ষমতা আছে। গ্রামের কৃষি শ্রমিকরা এখন প্রতিদিন ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা আয় করেন। দুর্ভিক্ষ শুধুমাত্র উৎপাদনহীনতার জন্য হয় না, মানসিকতার জন্যই দুর্ভিক্ষ হয়। সবার আগে মানসিকতার ইতিবাচক পরিবর্তন প্রয়োজন।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজশাহী নগর ভবনের গ্রিনপ্লাজায় সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে দেশবরেণ্য ৬ গুণীজনকে সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

ড. আতিউর রহমান বলেন, রাজশাহী সবুজে বিবর্তিত। নিজ চোখে দেখে যেতে পারলাম কী করে একটি নগর জীবন্ত ও সজীব হয়ে উঠেছে। পুরো দেশে এমন পরিচ্ছন্ন ও সবুজ নগরী গড়ে উঠছে না। রাজশাহী সবুজ ও গণমুখী নগর হিসেবে গড়ে উঠছে।

অনুষ্ঠানে গুণীজনদের ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন, উত্তরীয় পরিয়ে তাদের হাতে ক্রেস্ট ও সংবর্ধনা স্মারক তুলে দেন সিটি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন। অনুষ্ঠানে সংবর্ধনা স্মারকপত্রের মোড়ক উন্মোচন করেন অতিথিরা।

সংবর্ধিত গুণীজনেরা হলেন, আইন কমিশনের চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হক, আইন কমিশনের সদস্য বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীর, অর্থনীতিবিদ লেখক ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর অধ্যাপক ড. আতিউর রহমান, সাংবাদিক ও লেখক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবেদ খান এবং শিক্ষাবিদ-নাট্যকার ও লেখক অধ্যাপক রতন সিদ্দিকী। আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিত্রশিল্পী বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুদ্দিন আহমেদ অনুপস্থিত থাকায় তার প্রতিনিধিকে উত্তরীয়, ক্রেস্ট ও সংবর্ধনা স্মারক প্রদান করা হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, দেশবরেণ্য গুণীজনরা দেশের জন্য, জাতির জন্য, স্বাধীনতার মূল স্রোতকে ধরে রাখবার জন্য যা করেছেন, সেই ঋণ শোধ করা সম্ভব নয়। রাজশাহী কৃষি প্রধান অঞ্চল। এখানে কৃষিপণ্য নির্ভর শিল্প-কারখানা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। এখানে একটি পূর্ণাঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হওয়া খুবই দরকার। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হলে কৃষি নির্ভর রাজশাহীতে এ বিষয়ে রিসার্চ হবে। যা কৃষিতে উচ্চ ফলনশীল জাতের বীজ উদ্ভাবনে ভূমিকা রাখবে।

এছাড়া অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য দেন সমাজসেবী ও নারীনেত্রী শাহীন আকতার রেণী। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর গোলাম সাব্বির সাত্তার, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক, বাংলাদেশ শিশু একাডেমির মহাপরিচালক আনজীর লিটন, জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল, সাংবাদিক রাশেদ চৌধুরী প্রমুখ।