বাংলাদেশে ‘মানসম্পন্ন’ শিক্ষায় কন্যাশিশু, তরুণদের সুযোগ দিতে যুক্তরাজ্যের অনুদান


100 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বাংলাদেশে ‘মানসম্পন্ন’ শিক্ষায় কন্যাশিশু, তরুণদের সুযোগ দিতে যুক্তরাজ্যের অনুদান
নভেম্বর ২৬, ২০২১ ফটো গ্যালারি শিক্ষা
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

বাংলাদেশে মানসম্পন্ন শিক্ষায় কন্যাশিশু এবং তরুণদের শিক্ষার সুযোগ নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্য সরকার ৩ কোটি ৪৭ লাখ ডলার অনুদান দিয়েছে ইউনিসেফ বাংলাদেশকে।

ইউনিসেফ বাংলাদেশ জানিয়েছে, বাংলাদেশের সবচেয়ে সুবিধাবঞ্চিত এবং আনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যবস্থার বাইরে আছে এমন শিশুদের জন্য মানসম্পন্ন শিক্ষার সুযোগ তৈরি করতে ব্রিটিশ সরকার এই অনুদান দিয়েছে।

ঢাকায় ব্রিটিশ হাইকমিশনের মাধ্যমে এই অনুদানের অর্থ পায় ইউনিসেফ বাংলাদেশ।

বাংলাদেশে ইউনিসেফের প্রতিনিধি শেলডন ইয়েট বলেন, ‘প্রতিটি শিশুর জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে। কিন্তু সব স্তরে সমান সুযোগ এবং মানসম্পন্ন শিক্ষা প্রদানের ক্ষেত্রে জটিল কিছু চ্যালেঞ্জ এখনও রয়ে গেছে। যুক্তরাজ্য সরকারের এই উদার অবদান ইউনিসেফ বাংলাদেশ সরকার এবং অংশীদারদের সাথে এই চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করতে এবং বিশেষ করে যে সুবিধাবঞ্চিত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কোভিড-১৯ মহামারীর জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাদের সহায়তা করতে বড় ভূমিকা রাখবে।’

যুক্তরাজ্য সরকারের সঙ্গে ইউনিসেফের এই যৌথ উদ্যোগ স্কুলের বাইরে থাকা শিশুদের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দেবে। একইসঙ্গে কন্যাশিশু, প্রতিবন্ধী শিশু এবং সুবিধাবঞ্চিত এলাকার শিশুদের জন্য শিক্ষাকে উন্নত করবে। এটি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা স্তরে শিশুদের ভর্তি, তাদের স্কুলে ধরে রাখা এবং শিক্ষা সমাপনীর হার উন্নত করার ওপরও জোর দেবে। ২০২১ থেকে ২০২৮ সাল পর্যন্ত এই যৌথ প্রকল্প বাস্তবায়নে যুক্তরাজ্য সরকারের অর্থায়ন ইউনিসেফকে সহায়তা করবে।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন বলেন, ‘যুক্তরাজ্য সকল মেয়ে শিশুর ১২ বছরব্যাপী মানসম্মত শিক্ষার অধিকারের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। শিক্ষার উন্নতি করতে, কিশোরী মেয়েদের স্কুলে থাকতে সহায়তা করতে এবং সবচেয়ে প্রান্তিক শিশুদের মানসম্পন্ন শিক্ষায় প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করতে আমরা ইউনিসেফ, ব্র্যাক এবং বাংলাদেশ সরকারের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে পেরে আনন্দিত।’