বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি ‘সেক্রেটারি’ পদে লড়বেন জায়েদ খান


738 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি ‘সেক্রেটারি’ পদে লড়বেন জায়েদ খান
আগস্ট ২১, ২০১৬ ফটো গ্যালারি বিনোদন
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক :
বাংলা চলচ্চিত্রের হালের জনপ্রিয় অভিনেতা জায়েদ খান। অশ্লীলতা, পাইরেসিসহ বিদেশি চলচ্চিত্রের প্রদর্শন বন্ধে রাজপথের আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন সামনে থেকে। এ ছাড়া আগের বিভিন্ন শিল্পী সমিতির নেতৃত্বের সঙ্গেও কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজও করেছেন। চেয়ার না থাকায় চলচ্চিত্র ও সংশ্লিষ্ট শিল্পী-কলাকুশলীদের উন্নয়নে ইচ্ছা থাকলেও বেশি কিছু করা সম্ভব হয়নি। তবে, এবার দেশীয় চলচ্চিত্রের উন্নয়নে নিবিড়ভাবে কাজ করতে চান। এজন্য পরবর্তী বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা ভাবছেন সময়ের বাংলা ছবির পরিচিত মুখ জায়েদ খান। তিনি এসব কথা বলেন।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা প্রকাশ করার পাশাপাশি চলচ্চিত্র এবং চলচ্চিত্রের শিল্পীদের উন্নয়নের বিভিন্ন প্রসঙ্গ তুলে ধরেন জায়েদ খান। একইসঙ্গে বর্তমান কমিটি চাইলে আরও বেশি কিছু করতে পারতো বলেও মনে করেন তিনি। নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষণা দেওয়া এই অভিনেতা মনে করেন, যারা শীর্ষ নেতৃত্ব অবস্থান করে, তাদের অভিনয়ে সময় কমিয়ে দিয়ে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজ করা প্রয়োজন। কিন্তু অনেকে সেটা না করে ব্যক্তিগত স্বার্থের পেছনে ছুটতে থাকেন, এতে করে শিল্পীরা যে দায়িত্ব তাকে দিয়েছেন, সেটা পূরণ করা তাদের পক্ষে সম্ভব হয় না। তবে তিনি নির্বাচিত হলে ব্যক্তিগত নয়, চলচ্চিত্রের সার্বিক উন্নয়নেই বেশি মনোযোগ দেবেন বলে দাবি করেন।

জায়েদ খান বলেন, আমি নির্বাচিত হতে পারলেও অস্বচ্ছল শিল্পীদের জন্য বাস্থস্থানসহ বিভিন্ন সময়ে সংকটে পড়া শিল্পীদের অসহায়ত্ব কাটিয়ে তুলার জন্য বিশেষ তহবিলের ব্যবস্থা করব। সংশ্লিষ্ট সবাই একসঙ্গে বসে এফডিসিকে কিভাবে আধুনিকায়ন করা যায় তার আপ্রাণ চেষ্টা করবো। সিনেমা হলের সংখ্যা বাড়ানোর উদ্যোগ নেবো। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, শিল্পীরা আমাকে একবার সুযোগ দিলে, আমি প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাবে, যাতে তাদের সেই বিশ্বাসের প্রতিদান আমি দিতে পারি। তিনি জোর দিয়ে বলেন, আস্থা রাখবেন, যদি আপনাদের বিশ্বাসের প্রতিদান দিতে না পারি, তাহলে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়াবো। বিশ্বাস করুন, চেয়ার দখল করে রাখার জন্য ওই চেয়ারে বসতে আমার ইচ্ছা নেই। সিনিয়র শিল্পীরা আমার ওপর আস্থা রেখে তারা আমাকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সাহস যুগাচ্ছেন, তাদের সেই উৎসাহ আর চলচ্চিত্রের স্বার্থে আগেকার দিনের রাজপথের বিভিন্ন কর্মস্পৃহাই আমাকে একটি সমৃদ্ধশালী আধুনিক এফডিসি বিনির্মাণে সহায়তা করবে, যদি সুযোগ পাই।

সর্বশেষ ২০১৫ সালের ৩০ জানুয়ারি শিল্পী সমিতির বর্তমান কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সভাপতি পদে চিত্রনায়ক শাকিব খান এবং সাধারণ সম্পাদক পদে জয়লাভ করেন অমিত হাসান।

এদিকে, জয়েদ খানের আপকামিং ছবি ‘অন্তর জ্বালা’। গুণী নির্মাতা মালেক আফসারি পরিচালনায় এই ছবিতে তার বিপরীতে দেখা যাবে হালের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমণিকে। আসন্ন ঈদুল আজহা অথবা দূর্গা পূজায় ছবিটি মুক্তি দেওয়া হবে।