বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ পৌর নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ


291 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ পৌর নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ
নভেম্বর ১৭, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস.এম. সাইফুলইসলামকবির,বাগেরহাট :
আসন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পাটির মধ্য হতে অনেক নেতা নমিনেশন পেতে চালাচ্ছেন জোর লবিং।
পৌরনির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীও এখানে থাকছেন বলে শোনা যাচ্ছে। কথা উঠেছে, দলীয় নমিনেশন(নৌকা) পেতে অনেকে নগদ টাকার প্রভাব খাটাবেন। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের বিষয়েও শুরু হয়েছে আলোচনা। শোনা যাচ্ছে, মেয়র, কাউন্সিলর, চেয়ারম্যান, মেম্বর পদে টেন্ডার সিস্টেমে সর্বোচ্চ দরদাতাই পাবেন দলীয় প্রতীকের সিডিউল। কেউ আবার বলছেন যেকোন অংকের বিনিময়ে নৌকা চাই।মোরেলগঞ্জ পৌরসভায় এবারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী প্রায় চুড়ান্ত হয়ে গেছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অধ্যক্ষ মো. সাহাবুদ্দিন তালুকদার পাচ্ছেন দলীয় নমিনেশন বা নৌকা। তিনি গণসংযোগও শুরু করেছেন। সাহাবুদ্দিন তালুকদারের প্রার্থীতার বিষয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগের মধ্যে প্রকাশ্যে তেমন কোন মতবিরোধ এখন নেই। সংসদ সদস্য ডা. মোজাম্মেল হোসেনও তাকেই মেয়র হিসেবে দেখতে চাইছেন।এদিকে বর্তমান মেয়র মনিরুল হক তালুকদারও আওয়ামী লীগের নমিনেশন পেতে চালাচ্ছেন জোর লবিং। পরপর দু’বার তিনি মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। প্রথমবার আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও পরে আওয়ামী লীগের বিদোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হন।বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে পৌর বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল মজিদ জব্বার মাঠে কাজ করছেন। রাজনৈতিক দমন পিড়ন পাশ কাটিয়ে নেতাকর্মীসহ পৌর এলাকায় যোগাযোগ রক্ষা করে চলছেন তিনি। দলীয় নমিনেশন পেলে মাঠে থাকবেন আব্দুল মজিদ জব্বার। তবে প্রভাবমুক্ত নির্বাচিন নিয়ে তার মনে অনেক সংশয়।এদিকে মহাজোট শরীক জাতীয় পার্টির(এরশাদ) মোরেলগঞ্জ উপজেলা সভাপতি সোমনাথ দে মেয়র পদে নির্বাচন করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। মহাজোটের নমিনেশন না পেলে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মাঠে থাকবেন বলে জানিয়েছেন।আসছে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতীক বাদ হয়ে যাওয়া জোট শরিক জামায়াতে ইসলামীর কোন তৎপরতা এখানো দেখা যাচ্ছেনা। রাজনৈতিক দমনপীড়নের শিকার বিএনপিও জামায়াতের উলে¬খযোগ্য নেতারা বেশ কিছুদিন ধরেই হাওয়া চ্যানেল নির্ভর রাজনীতি করছেন।