বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে রোদে পুড়ে বৃষ্টিতে ভিজে স্কুল মাঠে ক্লাশ করছে ছাত্র-ছাত্রীরা


487 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে রোদে পুড়ে বৃষ্টিতে ভিজে   স্কুল মাঠে ক্লাশ করছে ছাত্র-ছাত্রীরা
অক্টোবর ১৩, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এসএম সাইফুল ইসলাম কবির,বাগেরহাট থেকে:
বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার দৈবজ্ঞহাটী ইউনিয়নের ১৪৩নং এমজি মিত্রডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের রোদে পুড়ে বৃষ্টিতে ভিজে মাঠে ক্লাশ করতে হয়। প্রয়োজনীয় আসবাবপত্রের সংকটের কারনে শিক্ষাকার্যক্রম দারুনভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ১৯৬৮ সালে প্রতিষ্ঠিত এ বিদ্যালয়টি ১৯৯৩ সালে পুনঃনির্মান করা হয়। তাতে ব্যায় হয় ৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকা G ২১ বছর পূর্বে নির্মিত এ বিদ্যালয়টি এখন মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে। যে কোন মুহুর্তে ভেঙ্গে পড়ে ঘটতে পারে বড় কোন দূর্ঘটনা। প্রতিনিয়ত আতঙ্কের মধ্যে থাকতে হয় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে পাঠিয়ে অভিভাবকরা নিশ্চিতে থাকতে পারছেনা। ভেঙ্গে পড়ার ভয়ে বৃষ্টি হলে অভিভাবকরা তাদের শিশুদের বিদ্যালয় থেকে নিয়ে যায়। তাছাড়া ভূমিকম্পের আতঙ্কতো রয়েছে। অফিস রুমের একটি নাজুক দরজা ছাড়া অন্য কোন রুমে দরজা নেই, জানালা নেই।

প্রয়োজনীয় বেঞ্চ ,চেয়ার, টেবিল নাই। পিলারের পলেস্তরা খসে খসে পড়ে রড দৃশ্যমান। ক্লাশ রুমের পলেস্তরাও প্রতিনিয়ত ঝরে পড়ছে। কোন দরজা জানালা না থাকায় গরু ছাগলের নিরাপদ আস্তানায় পরিনত হয়েছে ক্লাশ রুমগুলো। প্রধান শিক্ষিকা নাজমুন নাহার জানান, অনতিবিলম্বে এ বিদ্যালয় পুনঃনির্মান না করা হলে ছাত্র-ছাত্রীরা অন্যত্র চলে যাবে। এ বিদ্যালয়ে প্রতিবছরে শতভাগ পাশের রেকর্ড থাকলে প্রয়োজনীয় আসবাবপত্রের অভাব ও ভৌত অবকাঠামোগত ভীতির কারনে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।
স্থানীয়রা জানান, বিদ্যালয়টির অবস্থা খুবই নাজুক তাই এখানে শিশুদের পাঠদানের অবস্থা নেই পরিত্যক্তও ঘোষনা করা হয়েছে।