বাল্যবিবাহকে লালকার্ড : প্রধান শিক্ষক ও মাদ্রাসা সুপারদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা


600 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বাল্যবিবাহকে লালকার্ড : প্রধান শিক্ষক ও মাদ্রাসা সুপারদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা
মে ৩১, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আব্দুর রহমান,সাতক্ষীরা :
‘শিক্ষাই প্রথম-বাল্যবিবাহকে লালকার্ড’ কার্যক্রম বাস্তবায়ন বিষয়ে সাতক্ষীরা পৌর এলাকার সকল প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও মাদ্রাসার সুপারদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‘থাকলে শিশু বিদ্যালয়ে, হবেনা বিয়ে তার বাল্যকালে’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় সদর উপজেলা ডিজিটাল কর্ণারে সাতক্ষীরা পৌরসভার আয়োজনে ও সদর উপজেলা প্রশাসনের বাস্তবায়নে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ আব্দুল সাদীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম, পৌর কাউন্সিলর অনিমা মন্ডল, ব্রেকিং দ্যা সাইলেন্স এর প্রোগ্রাম ডাইরেক্টর জাহিদুল ইসলাম প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, ‘বাল্য বিবাহের পরিসংখ্যানে দক্ষিণাঞ্চলে প্রভাব অনেক বেশি। ‘শিক্ষাই প্রথম। বাল্যবিবাহ লাল কার্ড’ দেখানোর মাধ্যমে ১৮ বছরের আগে বাল্য বিবাহকে লাল কার্ড দেখিয়ে বের করে দিতে হবে। আমরা সবাই বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে কাজ করবো। বক্তারা আরো বলেন, কোর্ট ম্যারেজ কোন ম্যারেজ নয়! এফিডেভিট মানে বিয়ে না-শুধু মাত্র ঘোষনা। এটা যদি কেউ বিয়ে মনে করে তাহলে সেটি হবে অবৈধ সম্পর্ক। এছাড়া ১৮ বছরের আগে কোন ব্যক্তি এ ঘোষনা করতে পারবেন না। বাল্য বিবাহের আইন সম্পর্কে বক্তারা বলেন, বাল্য বিবাহের অপরাধে ছেলে মেয়ের বাবা মা, আত্বীয়-স্বজন এমনকি আমন্ত্রিত অতিথিরাও অপরাধী হিসেবে গন্য হবে। তিনি আরো বলেন, আজ থেকে সদর উপজেলায় আমরা আর কোন বাল্য বিবাহ দেখতে চাই না। কোন মেয়ের যদি বাল্য বিবাহের আয়োজন করা হয় তাহলে সে মেয়ে নিজে হট নাম্বারে (০১৯৭২১৮১৮২১, ০১৯৭৩১৮১৮২১) ফোন করে অবহিত করবেন। বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ করার পর ঐ শিক্ষার্থীর লেখা পড়া চালানোর দায়িত্ব আমাদের।’
কর্মশালায় সাতক্ষীরা পৌরসভার ৩৭টি প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক এবং মাধ্যমিক ও দাখিল মাদ্রাসার ২৬জন প্রধান শিক্ষক/সুপার অংশ নেন। কর্মশালা শেষে প্রতিটি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য লাল কার্ড বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন কারিমা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু তাহের, সিলভার জুবলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক চায়না ব্যানার্জী, রাজারবাগান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেহানা আফরোজ, আহ্ছানিয়া মিশন মাদ্রাসার আব্দুর রহমান, মাছখোলা আব্দুল মাজেদ, রসুলপুর শফিউদ্দিন, উত্তর কাটিয়া মনিরা আক্তার, ব্রেকিং দ্য সাইলেন্সের সাতক্ষীরা অফিস ইনচার্জ মোঃ শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।