‘বাল্য বিবাহ বন্ধে শুধু আইন নয় জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে’


226 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
‘বাল্য বিবাহ বন্ধে শুধু আইন নয় জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে’
জানুয়ারি ২০, ২০২০ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সুকুমার দাশ বাচ্চু ::

সাতক্ষীরা স্থানীয় সরকার এর উপপরিচালক হুসাইন শওকাত বলেছেন গত ৬ বছর আগে কালিগঞ্জ উপজেলা বাল্য বিবাহ মুক্ত হলেও তার ধারাবাহিকতা রক্ষা না হওয়ায় সেই কালিগঞ্জে বাল্য বিবাহ এখন ৭৪% বাল্য বিবাহ হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন আমাদের সকলকে বাল্য বিবাহ রোধে একযোগে কাজ করতে হবে। বাল্য বিবাহের হার কমাতে হবে। আমাদের আইনের প্রতি শ্রদ্ধা থাকতে হবে। অভিভাবদের সচেতন হতে হবে। লাটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিবাহ আইন সিদ্ধ নয়। বাল্য বিবাহ শুধু আইন দিয়ে বন্ধ নয়, বাল্য বিবাহ বন্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। তিনি গতকাল কালিগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ১৮ এর আগে বিয়ে নয়। তিনি সোমবার ২০ জানুয়ারী সকাল ১০টায় কালিগঞ্জ উপজেলা অডিটোরিয়ামে ১৮ এর আগে বিয়ে নয় উপজেলা পর্যায়ে গনসমাবেশ ও মুক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। কালিগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও ইউএসএআইডি খাদ্য নিরাপত্তা উন্নয়ণ কার্যক্রম নবযাত্রার বাস্তবায়নে আলোচনা সভায় উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা মোঃ মোজাম্মেল হক রাসেলে সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী, কালিগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আজিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক তারালী ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হোসেন ছোট, ভাইস চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম, ধলবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান গাজী শওকাত হোসেন, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাইফুল বারী সফু, সাংবাদিক সমিতির সভাপতি শেখ আনোয়ার হোসেন, নবযাত্রা ফিল্ড অফিস ম্যানেজার আশীষ কুমার হালদার, নবযাত্রার ডেপুটি ফিল্ড অফিস ম্যানেজার আশিক বিল্লাহ এর সঞ্চালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান দিপালী রানী ঘোষ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি নিয়াজ কওছার তুহিন, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক সুকুমার দাশ বাচ্চু, দুষ্ঠিপাতের ব্যুরো প্রধান আশেক মেহেদী, পুরোহিত তারকচন্দ্র আচার্য্য প্রমুখ। অনুষ্ঠানে প্রজেক্টরের মাধ্যমে বাল্য বিবাহের কুফল ও শাস্তিযোগ্য আইন বিষয়ে ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয়। গনসমাবেশ ও মুক্ত আলোচনায় সরকারী কর্মকর্তা, সাংবাদিক, শিক্ষক, জনপ্রতিনিধি, কাজী, ইমাম, পুরোহিত, অভিভাবক, স্কুলের ছাত্র ছাত্রী, স্থানীয় গন্যমান্য সূধি ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।