বুধহাটায় পুকুরে বিষ দিয়ে অর্ধ লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন !


426 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বুধহাটায় পুকুরে বিষ দিয়ে অর্ধ লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন !
নভেম্বর ২১, ২০১৫ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান, বুধহাটা আশাশুনি :
আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের কুঁন্দুড়িয়ায় পুকুরে বিষ দিয়ে অর্ধ লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাতে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।
শনিবার সকালে পুকুরে মাছ ভাসতে দেখলে বিষয়টি জানাজানি হয়। কুঁন্দুড়িয়া গ্রামের মুতঃ সুধাংশু কুমার সরকারের পুত্র শিবপদ ও উত্তম কুমার এবং গৌরপদ দের পুত্র রবীন্দ্র নাথ দে’র পুকুরে ঘটনার রাতে কে বা কারা বিষ প্রয়োগ করে। । পুকুর মালিকরা দ্রুত পুকুরে জাল ফেলে মাছ ধরে নেন। মৃগেল, টেংরা, রুই, কাতলা, ছাটি, বাগদা, ভাঙ্গান, চিতলসহ বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক টাকার মাছ বিষক্রিয়ায় মারা গেছে। পুকুরে দু’টি বিষের ছিপি খোলা বোতল পাওয়া গেছে। পুকুর মালিকরা জানান, স্থানীয় বাবর আলি সরদারের পুত্র খলিলুর রহমান দিং বিভিন্ন সময় ১.০০ একর জমি ক্রয় করেন। কিন্তু তারা প্রায় ১.২০ একর জমি ভোগদখল করছিলেন। হাল রেকর্ড অনুযায়ী মাপজোক করলে তাদের দখলে থাকা অতিরিক্ত জমি মালিকপক্ষ দাবী করলে তারা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে তাদের কাছে বিক্রয় করতে বলেন। এনিয়ে শিবপদ দিং এর পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, সমাজ সেবক আবম মোসাদ্দেক, সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হাশেম, সাবেক মেম্বার নজরুল ইসলাম, মেম্বার মতিায়ার রহমান প্রমুখ উভয় পক্ষকে নিয়ে বসে অতিঃ জমি ফেরৎ দেয়ার কথা বলেন এবং জমি মাপজোক করার সিদ্ধান্ত দেন গত ১৯/১১/১৫ তাং। এর একদিন পর পুকুরে বিষ প্রয়োগের ঘটনা ঘটেছে। থানার এএসআই আঃ হালিম, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আঃ হান্নান, মেম্বার মতিয়ার রহমান বিষ প্রয়োগে আক্রান্ত মাছ দেখতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।