বৈঠকে অংশ নেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না : জনপ্রশাসন সচিব


315 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
বৈঠকে অংশ নেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না : জনপ্রশাসন সচিব
নভেম্বর ২৫, ২০১৮ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
ঢাকা অফিসার্স ক্লাবে পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের গোপন বৈঠকের যে অভিযোগ বিএনপির পক্ষ থেকে করা হয়েছে; তা অসত্য ও বিভ্রান্তিকর বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন সচিব ফয়েজ আহম্মদ।

রোববার জনসংযোগ কর্মকর্তার মাধ্যমে গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রতিবাদপত্রে তিনি একথা জানান।

ওই প্রতিবাদপত্রে বলা হয়, কল্পিত ঘটনায় জনপ্রশাসন সচিব ফয়েজ আহম্মদকে জড়িয়ে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী যে বক্তব্য প্রদান করেছেন, তা অসত্য ও বিভ্রান্তিকর। গত ২০ নভেম্বর তিনি অফিসার্স ক্লাবেই ছিলেন না, ফলে বৈঠকে অংশ নেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

এতে বলা হয়, যে তারিখ ও সময়ের কথা উল্লেখ করা হয়েছে সেই তারিখ ও সময়ে জনপ্রশাসন সচিব মন্ত্রণালয়ের দাপ্তরিক কাজ সম্পাদন শেষে রাত ৮টায় পারিবারিক একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে অফিস ত্যাগ করেন।

জনপ্রশাসন সচিবের ওই প্রতিবাদপত্রে আরও বলা হয়, ওই দিন তিনি অফিসার্স ক্লাবেই যাননি অথচ তাকে জড়িয়ে মিথ্যা প্রপাগান্ডা ছড়ানো হয়েছে, যা তার সুনাম ও সম্মানের হানিকর।

শনিবার সকালে নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেন, ২০ নভেম্বর মঙ্গলবার রাতে ঢাকা অফিসার্স ক্লাবের চতুর্থ তলার পেছনের কনফারেন্স রুমে এক গোপন মিটিং হয়। এতে সরকারের প্রশাসন ও পুলিশের কয়েকজন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। বিএনপির দাবি অনুযায়ী ওই বৈঠকে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীনও ছিলেন।

বিএনপির এই অভিযোগের ব্যাপারে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন ওইদিন সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের বলেন, এটা মিথ্যা, বানোয়াট অভিযোগ। এসব কর্মকাণ্ডের জন্য বিএনপিকে ভবিষ্যতে সতর্ক হতে হবে।