ভারতের ঘোজাডাঙ্গায় বাংলাদেশী পাসপোর্ট যাত্রীদের নির্যাতন করছে বিএসএফ


334 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ভারতের ঘোজাডাঙ্গায় বাংলাদেশী পাসপোর্ট যাত্রীদের নির্যাতন করছে বিএসএফ
মার্চ ১৮, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::
সাতক্ষীরার ভোমরা ইমিগ্রেশন চেক পোষ্ট দিয়ে ভারতে যাতায়াতের পথে বিএসএফের হাতে প্রতিনিয়ত নিগৃহীত হচ্ছেন বাংলাদেশী পাসপোর্ট যাত্রীরা। বিএসএফ তল্লাশীর নামে তাদেরকে বিনা কারণে ঘন্টার পর ঘন্টা আটকে রেখে কেড়ে নিচ্ছে কিনে আনা মালামাল। কারন জিজ্ঞাসা করলে তাদেরকে বেদম মারিপটও করা হচেছ।

তাদের এই অত্যাচার থেকে বাদ পড়ছেন না নারীরাও। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এসে এমন অভিযোগ করেন সদর উপজেলার বৈচনা গ্রামের মহিদুল ইসলাম।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, শনিবার তিনি তার পাসপোট (নং বিএল ০৮০৬৫৩৭) সহ দুপুর ১২ টার দিকে দেশে ফেরার পথে ভোমরা ইমিগ্রেশন চেক পোষ্টের বিপরীতে ভারতের ঘোজাডাঙ্গায় আসেন।

এ সময় তল্লাশীর নামে বিএসএফ ঘোজাডাঙ্গা ক্যাম্পের সদস্যরা তাকে নানা প্রশ্নবাণে বিদ্ধ করেন। কিচ্ছুক্ষ পর তাকে ক্যাম্পের মধ্যে নিয়ে যাওয়া হয়। টানা দুই ঘন্টা সেখানে বসিয়ে রাখার কারন জিজ্ঞাসা করলে তাকে লাঠিপেটা করে বিএসএফ সদস্যরা।

মহিদুল বলেন, আমি একজন বৈধ পাসপোর্টধারী বাংলাদেশী নাগরিক, আমার কাছে কোনো অবৈধ জিনিসও নেই, এসব কথা বলার পরও তারা তার কথা গ্রাহ্য করেনি। একথা বলায় ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারপিট করে পরে ছেড়ে দেওয়া হয়।

কিন্তু ছেড়ে দিলেও তার কাছে থাকা যাবতীয় ব্যবহার্য মালামাল কেড়ে নেয় বিএসএফ। এমনকি তার মোবাইল ফোনটিও নিয়ে নিয়েছে তারা।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, তার সামনে একইভাবে একজন অপরিচিত বাংলাদেশী নারীকেও মারধর করেছে বিএসএফ। পরে তাকেও ছেড়ে দেওয়া হয়। মহিদুল তার অভিযোগ সাতক্ষীরার ভোমরা কাস্টমস ও ভোমরা বিজিবিকে দিয়ে এর প্রতিকার দাবি করেছেন।
##