ভারতে দৈনিক সংক্রমণে রেকর্ড, আক্রান্ত ৩৫ লাখ ছাড়াল


107 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ভারতে দৈনিক সংক্রমণে রেকর্ড, আক্রান্ত ৩৫ লাখ ছাড়াল
আগস্ট ৩০, ২০২০ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

ভারতে রোববার সকাল পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৭৮ হাজার ৭৬১ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে, যা একদিনে সর্বোচ্চ। এতে দেশটিতে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

রোববার সকালে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে। মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, ভারতে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৩৫ লাখ ৪২ হাজার ৭৩৩ জন। এদের মধ্যে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৬৩ হাজার ৪৯৮ জনের। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ৯৫০ জন। খবর এনডিটিভির

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিচারে বিশ্বে ভারতের অবস্থান এখন তিন নম্বরে। এক্ষেত্রে শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র এবং দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। গত ২৬ দিন ধরে দৈনিক সংক্রমণ বিবেচনায় শীর্ষে অবস্থান করছে ভারত।

এদিকে ভারতে গত ৫ মাসে মোট করোনা আক্রান্তের তিন-চতুর্থাংশেরও বেশি রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন উল্লেখ করে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বর্তমানে ভারতে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা মোট আক্রান্তের এক-চতুর্থাংশেরও কম।

এ বিষয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক টুইটে বলা হয়েছে, কেন্দ্রের কৌশলগত পরিকল্পনা এবং লাগাতার করোনা পরীক্ষা পদ্ধতি কার্যকর হওয়ার ফলেই করোনা থেকে সেড়ে ওঠার হার বেড়েছে এবং প্রাণহানি কমানো গেছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রথম নজরে আসে গত বছরের ডিসেম্বরে, চীনে। এরপর চীন থেকেই এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বজুড়ে। বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ১৮৮টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, রোববার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৪৯ লাখ ১৭ হাজার ১৫১ জনে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮ লাখ ৪১ হাজার ৫৪৯ জনের। আর এ পর্যন্ত সেড়ে উঠেছে ১ কোটি ৬৩ লাখ ৪৪ হাজার ৮১২ জন।

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে। রোববার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯ লাখ ৬০ হাজার ৬৫২ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৮২ হাজার ৭৬০ জনের।