ভারত কারও ভূমিতে হামলা করবে না :মোদি


170 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ভারত কারও ভূমিতে হামলা করবে না :মোদি
অক্টোবর ৩, ২০১৬ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক :
কাশ্মীরের উরিতে সন্ত্রাসী হামলা ও পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সার্জিক্যাল অ্যাটাকের পর ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের উত্তেজনা কিংবা আশঙ্কাকে নাকচ করে দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। খবর : এনডিটিভি, হিন্দুস্তান টাইমস, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, ডন অনলাইন।

গতকাল রোববার মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত প্রবাসী ভারতীয় কেন্দ্রের এক অনুষ্ঠানে মোদি বলেন, ভারত কখনও কোনো দেশকে আক্রমণ করবে না। ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিকার বলেছেন, অস্ত্রোপচারের পর একজন রোগী যেমন অচেতন অবস্থায় থাকে, পাকিস্তানের অবস্থাও এখন তেমন। তিনি বলেন, পাকিস্তানিদের হাতে আটক ভারতীয় জওয়ানকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে।

ঘটনাস্থলে পাকিস্তানি সাংবাদিক দল : এদিকে পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ভারতের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক, নাকি নিতান্তই সীমান্ত সংঘর্ষ ছিল তা সরেজমিন তদন্ত করতে ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের একটি দলকে পরিদর্শনে নিয়ে যায় পাকিস্তানি সেনা কর্তৃপক্ষ। শনিবার দেশি-বিদেশি ২০টি সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিত্বকারী ৪০ সাংবাদিকের একটি দলকে কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখায় পরিস্থিতি যাচাইয়ের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। সাংবাদিকদের উদ্দেশে পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ বিভাগের (আইএসপিআর) মহাপরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসীম বাজওয়া বলেন, ‘উত্তেজনা সৃষ্টি এবং যুদ্ধের প্রচার কাউকেই মানায় না।’

পাকিস্তানের যুদ্ধপ্রস্তুতি! :নিজেদের আকাশসীমায় মহড়া দিয়ে পাকিস্তানি বিমানবাহিনী যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে আশঙ্কা করছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, করাচি ও লাহোরের আকাশসীমায় বিদেশি বিমানগুলোর চলাচলের জন্য উচ্চতা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, করাচিতে ৩৩ হাজার ফুটের নিচ দিয়ে এবং লাহোরে ২৯ হাজার ফুটের নিচ দিয়ে বিদেশি বিমানের চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

ভারতে উড়ে আসছে কাশ্মীর নিয়ে বার্তা লেখা বেলুন : ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের পাকিস্তান সীমান্তবর্তী এলাকায় বেশ কিছু হলুদ রঙের বেলুন এসে পড়ার পর এগুলো কোত্থেকে এসেছে সে অনুসন্ধানে নেমেছে পুলিশ।

বেলুনগুলোতে উর্দুতে লেখা কিছু বার্তা আটকে দেওয়া আছে, যাতে কাশ্মীর পরিস্থিতিকে কেন্দ্র করে ভারতকে হুমকি দেওয়া হয়েছে এবং পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর বীরত্বের কথা বলা হয়েছে। এদিকে গুজরাট উপকূলে নয় ব্যক্তিসহ আটক করা হয়েছে একটি পাকিস্তানি নৌকা। রোববার ভারতীয় কোস্টগার্ড নৌকাটি আটক করে।