ভাড়াশিমলায় সম্পত্তি রক্ষা ও মিথ্যে মামলা থেকে অব্যহতির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন


205 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ভাড়াশিমলায় সম্পত্তি রক্ষা ও মিথ্যে মামলা  থেকে অব্যহতির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন
ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের ভাড়াশিমলায় রমজান বাহিনী কর্তৃক দীর্ঘদিনের ভোগদখলীয় সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল চেষ্টা এবং মিথ্যে মামলায় জড়িয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে কালিগঞ্জ উপজেলার ভাড়াশিমলা গ্রামের হাজী শেখ আব্দুল করিমের ছেলে শেখ মুনজুরুল ইসলাম এই অভিযোগ করেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, প্রায় ১০ বছর আগে কালিগঞ্জের কামদেবপুর মৌজায় ৯ একর ৭২ শতক সম্পত্তির মূল মালিকের ওয়ারেশগণের কাছ থেকে ক্রয় করে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখল করে আসছিলাম। নিয়মিত হারির টাকা পরিশোধের শর্তে উক্ত সম্পত্তি একই গ্রামের মৃত. দোস্ত মোহাম্মাদের ছেলে আব্দুর রশিদের কাছে ইজারা দেই। কিন্তু একই এলাকার পরসম্পদ লোভী মৃত. মোতালেব আলীর ছেলে রমজান বাহিনী প্রায় রাতে রশিদের ঘেরের বাসায় আগুন দেয়া, জোরপূর্বক মাছ ধরে নেয়াসহ বিভিন্নভাবে অত্যাচার করে আসছিল। একপর্যায়ে রশিদকে তাড়িয়ে দিয়ে রমজান তার সহযোগি মৃত নকুল চন্দ্রসাহার ছেলে লহ্মীকান্ত সাহা কে ওই ঘেরে বসায়। সে আমাকে কোন হারির টাকা না দেওয়ায় প্রায় দুইবছর পর গত দুই মাস আগে শান্তিপূর্ণভাবে আমার সম্পত্তিতে দখল বুঝে নেই।
শেখ মুনজুরুল ইসলাম বলেন, আমার সম্পত্তি থেকে দখলচ্যুত হয়ে রমজান বাহিনীর ক্যাডাররা প্রশাসনের কতিপয় ব্যক্তিকে ম্যানেজ করে ওই জমি পুনরায় দখলের চক্রান্ত করতে থাকে। এরই জের ধরে গত ৯ ফেব্রুয়ারি ৫০/৬০ জনের সশস্ত্র বাহিনী আমার ঘেরের বাসায় ঢুকে বাসা ভাংচুর এবং লুটপাট করে দখলের চেষ্টা করে। এসময় তারা লক্ষ লক্ষ টাকার মাছ লুটপাট করে নিয়ে যায়। এছাড়া আমার ঘেরের পাহারাদার আব্দুস সাত্তার গাজী আদালত থেকে জামিন নিয়ে থানায় রিকল জমা দেওয়ার পরও তাকে আরো একটি মিথ্যে মামলায় আটক করে কারাগারে পাঠায়। শুধু তাই নয় কেউ যাতে আমার ঘের পাহারা না দেয় সেজন্য অন্যান্য পাহারাদেরকেও রাতে তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে পুলিশ।
তিনি আরো বলেন, বর্তমানে থানা পুলিশ পরোক্ষভাবে রমজান বাহিনীকে সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া ঘেরে গেলে মারপিট, খুন জখমের পাশপাশি মিথ্যে মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করা হবে বলে প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছে রমজান ও তার বাহিনীর লোকজন। রমজান বাহিনীর অত্যাচারে আমার ঘেরের পাহারাদারা ভীতসন্ত্রস্থ হয়ে পড়েছে। তিনি ওই রমজান বাহিনীর কবল থেকে তার ভোগদখলীয় সম্পত্তি রক্ষা এবং মিথ্যে মামলার দায় হতে অব্যহতি পেতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।