ভিয়ানোভেন্সকে ৬-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে শেষ ষোলতে বার্সেলোনা


319 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ভিয়ানোভেন্সকে ৬-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে শেষ ষোলতে বার্সেলোনা
ডিসেম্বর ৩, ২০১৫ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
সান্দ্রো রামিরেসের হ্যাটট্রিকে ভিয়ানোভেন্সকে ৬-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে শেষ ষোলতে উন্নীত হলো বার্সেলোনা।

বুধবারের খেলায় বার্সেলোনার হয়ে সান্দ্রো রামিরেসের হ্যাটট্রিকের পাশাপাশি পাশাপাশি মেসির পরিবর্তে একাদশে ঢোকা মুনির এল হাত্তাদি জোড়া গোল করেন। অপর গোলটি করেন দানি আলভেজ। ভিয়ানেভেন্সের হয়ে ব্যবধান কমানো গোলটি করেন হুয়ান ফ্রান।

লিওনেল মেসি, নেইমার ও সুয়ারেজের মতো দলের সেরা তারকাদের অনুপস্থিতিতে সান্দ্রো, মুনিররা বার্সেলোনার স্কোয়াড কতটা শক্তিশালী সেটা দারুণভাবে প্রমাণ করে দেন।

ঘরের মাঠ ন্যু-ক্যাম্পে প্রথম গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি বার্সেলোনাকে। খেলার চতুর্থ মিনিটে ডি বক্সের অনেকটা বাইরে থেকে বুলেটড়তির শটে ভিয়ানোভেন্স গোলরক্ষককে পরাস্ত করে বার্সাকে এগিয়ে নেন ব্রাজিলয়ান ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার দানি আলভেজ।

২১তম মিনিটে গোলরক্ষকের ভুলে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সান্দ্রো রামিরেস। নিজেদের বক্সের ভেতরে সতীর্থের সঙ্গে বল দেয়া-নেয়া করতে গিয়ে পেনাল্টি বক্সের ভেতরে সান্দ্রোর কাছে বল তুলে দেন সফরকারী দলের গোলরক্ষক। বল নিজের দখলে নিয়ে দারুণ ফিনিশিংয়ে গোল করে বার্সাকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন সান্দ্রো।

২৯তম মিনিটে ব্যবধান কমিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তোলার ইঙ্গিত দেয় ভিয়ানোভেন্স। ২৫ গজ দূর থেকে দৃষ্টিনন্দন এক শটে বার্সা গোলরক্ষককে পরাস্ত করে ব্যবধান ২-১ এ নামিয়ে আনেন হুয়ান ফ্রান।

তবে ভিয়ানোভেন্সের ঘুরে দাঁড়ানোর আশা শেষ করতে খুব বেশি সময় নেয়নি বার্সেলোনা। দুই মিনিট পর ডি বক্সের ভেতরে বল পেয়ে দারুণ ফিনিশিংয়ে নিজের দ্বিতীয় গোলটি আদায় করেন সান্দ্রো রামিরেস। এরপর প্রথমার্ধে আর কোনো গোল না হওয়ায় দুই দল ৩-১ ব্যবধান নিয়ে বিরতিতে যায়।

বিরতির পরও গোলের ক্ষুধা কমেনি বার্সেলোনার। ৫১তম মিনিটে বার্সার গোলবন্যায় যোগ দেন মুনির এল হাত্তাদি। জেরেমি ম্যাথিউ এর ক্রস থেকে ভেসে আসা বলে গোলপোস্টের খুব কাছ থেকে দারুণ হেডে গোল করে ব্যবধান ৪-১ করেন মুনির।

৬৯তম মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিক পুর্ণ করেন সান্দ্রো রামিরেস। পেনাল্টি বক্সের ভেতরে বল বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হন ভিয়ানোভেন্সের খেলোয়াড়রা। বল চলে যায় সান্দ্রোর কাছে। সান্দ্রো বল নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দারুণ এক শটে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন।

৭৬তম মিনিটে বার্সেলোনার কফিন শেষ পেরেক ঠুকেন মুনির এল হাত্তাদি। মাঝমাঠের সামান্য ওপর থেকে আদ্রিয়ানোর বাড়ানো লম্বা পাস ধরে ডি বক্সের ভেতরে ব্যাক হিল পাস দেন সান্দ্রো রামিরেস। অরক্ষিত থাকা মুনির দারুণ শটে লক্ষ্যভেদ করে বার্সার বড় জয় নিশ্চিত করেন।

বুধবারের ম্যাচে মেসিকে স্কোয়াডে না রেখে দল ঘোষণা করেন কোচ লুইস এনরিকে। নেইমার ও সুয়ারেজ দলে থাকলেও সান্দ্রো ও মুনিরদের অসাধারণ পারফরম্যান্সের কারণে এই দুজনকে নামানোর প্রয়োজন-বোধ করেননি এনরিকে।