ভোমরায় ফেন্সিডিলসহ লাবসা ইউপি চেয়ারম্যানের মোটরসাইকেল আটক : চেয়ারম্যানের ছেলের ভো-দৌড় !


459 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ভোমরায় ফেন্সিডিলসহ লাবসা ইউপি চেয়ারম্যানের মোটরসাইকেল আটক : চেয়ারম্যানের ছেলের ভো-দৌড় !
সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
ভোমরার লক্ষীদাঁড়ী এলাকায় বিজিবি’র অভিযানে  ২৮ বোতল ফেন্সিডিল, সিবিজেড মোটরসাইকেলসহ এক যুবককে আটক করা হয়েছে। আটক হওয়া যুবকের নাম দেলোয়ার হোসেন(২৫)। সে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার গোপীনাথপুর গ্রামের শামছুর রহমানের ছেলে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাতক্ষীরা-৩৮ বিজিবি ভোমরা বিওপির ল্যান্স নায়েক মুকুল মাহমুদের নেতৃত্বে একটি টহলদল মঙ্গলবার বেলা ১২টায়  সদর উপজেলার ভোমরা লক্ষীদাঁড়ী কৃষি ব্যাংক সংলগ্ন কাঁচা রাস্তা  এলাকায় অভিযান চালায়। অভিযানে বিজিবি সদস্যরা সাতক্ষীরা ল-১১-২০৬০ নং রেজিষ্টেশনের ১৫০ সিসি হলুদ রঙের একটি সিবিজেড মোটর সাইকেলে ব্যাগ ভর্তি ফেন্সিডিলসহ দেলোয়ার হোসেনকে আটক করে। বিজিবির অভিযান বুঝতে  পেরে অপর অজ্ঞাত যুবক মোটর সাইকেল থেকে লাফ দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

সূত্রে জানাযায়,  ভোমরা বিওপির অভিযানে ফেন্সিডিলসহ আটক হওয়া মোটরসাইকেলটি সাতক্ষীরা সদরের লাবসা ইউনয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল আলিমের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল।  ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আলিমের ছেলে শাহিন দীর্ঘ দিন যাবত ওই মোটরসাইকেলটি ব্যবহার  করতো। ঘটনার সময় আলিম চেয়ারম্যানের ছেলে শাহিন ভো-দৌড় দেয়।

এব্যাপারে ভোমরা বিওপির ল্যান্স নায়েক মুকুল মাহমুদ বাদী হয়ে সাতক্ষীরা সদর থানায়  মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে আটক হওয়া যুবক দেলোয়ার হোসেনকে ১নং আসামী এবং পালিয়ে যাওয়া ব্যক্তিকে অজ্ঞাত উল্লেখ করে একটি মামলা করেছেন বলে জানা গেছে।