মননশীল ও শিক্ষিত জাতি গঠনে লাইব্রেরীর কোন বিকল্প নেই : অতিরিক্ত ডিআইজি


148 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মননশীল ও শিক্ষিত জাতি গঠনে লাইব্রেরীর কোন বিকল্প নেই : অতিরিক্ত ডিআইজি
ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

খুলনা রেঞ্জ পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি হাবিবুর রহমান (বিপিএম) বলেছেন, বর্তমান সময়ে ইন্টারনেটের অপব্যবহার বেড়ে যাওয়ার ফলে জ্ঞান অর্জন করার পরিবেশ হারিয়ে যাচ্ছে। স্কুল পড়–য়া ছেলে-মেয়েরা লেখাপড়ার মূল্যবান সময় নষ্ট করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আকৃষ্ট হয়ে পড়ছে। তিনি ইন্টারনেটের অপব্যবহারের মত ভয়াবহ অভিশাপের ব্যধি থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য তরুণ প্রজন্মকে লাইব্রেরী মূখো হওয়ার আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, বিজ্ঞানী পি.সি রায় সহ অনেক গুণি ব্যক্তি জন্মগ্রহণ করে অত্র এলাকাকে সমৃদ্ধ করেছেন। মননশীল ও শিক্ষিত জাতি গঠনে লাইব্রেরীর কোন বিকল্প নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, অনির্বাণ লাইব্রেরী নানামূখী কর্মকান্ডের মাধ্যমে এলাকার পুরাতন গৌরব ও ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হবে। তিনি বৃহস্পতিবার বিকালে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে পাইকগাছার ঐতিহ্যবাহী অনির্বাণ লাইব্রেরী আয়োজিত শিক্ষক সম্মাননা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে লাইব্রেরীর প্রতিষ্ঠাতা ও সিলেট রেঞ্জ পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র বলেন, অনেক বড় স্বপ্ন নিয়ে অনির্বাণ লাইব্রেরী প্রতিষ্ঠা করেছিলাম। কিছু মানবিক মানুষের সহযোগিতায় বহুতল ভবন হয়েছে। লাইব্রেরীটি শুধু বই পড়ার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। একটি গ্রাম বদলে দিতে যা যা প্রয়োজন সব কিছুই লাইব্রেরীর মাধ্যমে করা হচ্ছে। নান্দনিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে লাইব্রেরীর সুনাম দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। মানুষকে দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, দেশের ভৌগোলিক অবস্থান ও পৃথিবী সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার জন্য লাইব্রেরীর কোন বিকল্প নেই উল্লেখ করে জয়দেব ভদ্র আরো বলেন, প্রতিটি এলাকায় যদি এ ধরণের লাইব্রেরী গড়ে তোলা সম্ভব হয় তাহলে শুধু একটি গ্রাম নয় গোটা দেশ বদলে যাবে। তিনি বলেন, সকলের সহযোগিতায় আগামীতে অত্র উপজেলা সহ পাশ্ববর্তী এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের বৃত্তির আওতায় আনা হবে। লাইব্রেরীর সভাপতি সমীরণ দে’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন, হরিঢালী ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল আহাদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী পরিচালক হায়াতুজ্জামান মুকুল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইব্রাহীম। বক্তব্য রাখেন, ওসি এমদাদুল হক শেখ, দৈনিক কালের কণ্ঠের সিনিয়র সাংবাদিক নিখিল ভদ্র, পার্লামেন্ট নিউজ ডটকম এর সম্পাদক শাকিলা রুমা, যশোর প্রেসক্লাবের সভাপতি মিজানুর রহমান তোতা, অধ্যাপক নিমাই চন্দ্র মন্ডল, বিধান চন্দ্র ভদ্র, অশোক ঘোষ, অধ্যক্ষ হরেকৃষ্ণ দাশ, প্রধান শিক্ষক রহিমা আক্তার শম্পা, জেলা পরিষদ সদস্য নাহার আক্তার ও গণেশ ভট্টাচার্য। অনুষ্ঠানে হরিঢালী ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক আব্দুল আহাদকে আজীবন সম্মাননা ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫৬ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে মনিরুদ্দীন অনির্বাণ বৃত্তি প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অনির্বাণ লাইব্রেরীর সাধারণ সম্পাদক প্রভাত দেবনাথ।

#